‘পদ্মা’ ও ‘মেঘনা’ নামেই হচ্ছে নতুন দুই বিভাগ

‘পদ্মা’ ও ‘মেঘনা’ নামেই হচ্ছে নতুন দুই বিভাগ

ডেস্ক রিপোর্ট
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

বৃহত্তর ফরিদপুরের পাঁচটি জেলা নিয়ে ‘পদ্মা’ ও চট্টগ্রামের ছয়টি জেলা নিয়ে ‘মেঘনা’ নামে দুটি নতুন বিভাগ হচ্ছে। ইতোপূর্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই নামে দুটি বিভাগ অনুমোদন দেয়া হবে জানিয়েছিলেন। যদিও কুমিল্লা দাবি করে আসছিল, ‘কুমিল্লা’ নামেই বিভাগ হবে।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ওই বৈঠকেই ঢাকা বিভাগ ভেঙ্গে ‘পদ্মা’ ও চট্টগ্রাম বিভাগ ভেঙ্গে ‘মেঘনা’ নামে নতুন দুটি বিভাগ অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করার কথা ছিল।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে এই কথা জানা গিয়েছিল।

বৃহত্তর ফরিদপুরের পাঁচ জেলা ফরিদপুর, শরীয়তপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুর নিয়ে পদ্মা নদীর নাম অনুযায়ী ‘পদ্মা বিভাগ’ হচ্ছে। এ বিভাগ প্রতিষ্ঠার সঙ্গে যুক্ত আন্দোলনকারীরা ফরিদপুরের নামেই বিভাগের নামকরণের জোর দাবি জানিয়েছিলেন।

বৃহত্তর কুমিল্লার তিনটি কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুর এবং বৃহত্তর নোয়াখালীর তিন জেলা নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুর থাকছে ‘মেঘনা’ বিভাগে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর কোনো বিভাগের নাম সংশ্লিষ্ট জেলার নামে হবে না বলে এর আগে একাধিক বৈঠকে বলেছিলেন। তার সেই কথার বাস্তবায়নই হতে যাচ্ছে। বৃহত্তর কুমিল্লা ও বৃহত্তর নোয়াখালীর ছয়টি জেলায় প্রায় দুই কোটি মানুষের বসবাস।

ঢাকা ও চট্টগ্রামের ওপর চাপ কমানো ও প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণের লক্ষ্যে প্রায় এক দশক আগেই সরকার দুটি বিভাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

এরপর বিভিন্ন সময় বিভাগ সম্পর্কিত বিষয় আলোচনা এলে সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোর নেতাদের প্রতিযোগিতার কারণে সিদ্ধান্ত নিতে সময় নিয়েছে সরকার।

নতুন এই বিভাগ দুটি নিকারের অনুমোদন পেলে দেশে বিভাগের সংখ্যা হবে ১০টি। যদিও নতুন বিভাগ দুটির কার্যক্রম শুরু করতে আরও কিছু প্রক্রিয়া সম্পাদন করতে হবে সরকারকে।
সুত্র : সমকাল