মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান, দুইদিনে টেকনাফে আসলো না পণ্যবাহী ট্রলার

ছুটিতে চালু টেকনাফ স্থলবন্দর, ৮১১ টন পেঁয়াজ ও আদা আমদানি

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের প্রভাবে কোটি কোটি টাকা রাজস্ব আয়ের অন্যতম মাধ্যম টেকনাফ স্থলবন্দরে গত দুইদিন ধরে মিয়ানমার থেকে পণ্য বোঝাই কোনও ট্রলার আসেনি।

২ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত বাণিজের আওতায় কোনও আমদানিও হয়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ স্থল বন্দর ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জসীম উদ্দীন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের পর সেদেশের মংডো ও আকিয়াব এই দুই জায়গা থেকে পণ্যের চালানবোঝাই কোনও ট্রলার আসেনি। এক সপ্তাহ পর বোঝা যাবে পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে।’

স্থলবন্দরের শ্রমিকদের মাঝি নুরু সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিদিন মিয়ানমার থেকে পণ্যবোঝাই দুই-তিনটি ট্রলার আসে। কিন্তু গত দুইদিন ধরে কোনও ট্রলার আসেনি। অন্যদিন সে দেশের মাঝিমাল্লাদের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হলেও আজ ফোনেও কথা বলা যায়নি।

টেকনাফ স্থলবন্দরের সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি আব্দুল আমিন বলেন, মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান এবং সু চি গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে সেই দেশের মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ থাকার কারণে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না। গত দুইদিন ধরে স্থলবন্দরে পণ্য বোঝাই কোন ট্রলার আসেনি।

এদিকে গত কয়েকদিন ধরে মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু বোঝাই কোন ট্রলার আসেনি বলে জানিয়েছেন টেকনাফ গবাদিপশু আমদানিকারক শাহপরীরদ্বীপ করিডোরের সভাপতি আবদুল্লাহ মনির। তিনি জানান, মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান হওয়ার পর থেকে গরুবোঝাই কোন ট্রলার আসেনি। আরো কতদিন পশু আমদানি বন্ধ থাকবে তার সঠিক তথ্য নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।