কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বঙ্গবন্ধুর দুইটি ‘বালুর ভার্স্কয’

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বঙ্গবন্ধুর দুইটি ‘বালুর ভার্স্কয’

বিশেষ প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

পৃথিবীর দীর্ঘতম বালুকাময় সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে তৈরি করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘বালুর ভাস্কর্য’। সৈকতের বালিয়াড়িতে তর্জনী উঁচিয়ে আছেন হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আর তাঁর মাথার উপরে লেখা আছে, ‘এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’।

সমুদ্র সৈকতের বালুচরে এই চিত্রই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে বালু দিয়ে তৈরি বঙ্গবন্ধুর বালুর ভাস্কর্যে।

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙচুর ও অবমাননার প্রতিবাদ এবং জাতির পিতার জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় দু’টি ভাস্কর্য নির্মাণ করেছে ‘ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার’। সুত্র মতে, এই প্রথম সৈকতের বালিয়াড়িতে বঙ্গবন্ধুর সর্ববৃহৎ ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছে।

মহান বিজয় দিবসে বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে এই দু’টি ভাস্কর্য দর্শণার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্টে ‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য’ নির্মাণে কাজ করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ১০ জন শিক্ষার্থী। আয়োজকরা জানান, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য অপসারণের ধৃষ্টতা আর যাতে কেউ না দেখায়, তার প্রতিবাদেই এ ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছে।

‘ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার’ এর সমন্বয়ক ও সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয় সাংবাদিকদের বলেন, ‘ধর্মান্ধ এবং উগ্রবাদীদের কাছে একটি বার্তা পৌঁছে দিতে চাই, তারা যেন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য গুঁড়িয়ে দেয়া কিংবা অপসারণের মতো ধৃষ্টতা না দেখায়।’

তিনি জানান, ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধুর বালুর তৈরি ভাস্কর্যটি নির্মাণ করছে ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার।

আয়োজকদের মতে, এটি নিঃসন্দেহে একটি ভাল উদ্যোগ এবং অভিনব প্রতিবাদ। এভাবেই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধুকে আমাদের মধ্যে যুগ যুগ ধরে বাঁচিয়ে রাখতে হবে।

তারা বলেন, নতুন প্রজন্মের অনেকেই মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস ভুলতে বসেছে। এ ধরণের উদ্যোগের মধ্যদিয়েই মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ সম্পর্কে জাতিকে জানাতে হবে।

ভাস্কর্য নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের প্রতিবাদে সমুদ্র সৈকতে বিজয় দিবসকে সামনে রেখে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, আমরা ওই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং ওই ঘটনার প্রতিবাদে আমাদের ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ।