কক্সবাজার ও বান্দরবানে ৩ ইয়াবা কারবারি ধরা খেলো বাঁশখালীতে, ১৯২৮৫ ইয়াবা ও দুই মোটরসাইকেল জব্দ

কক্সবাজার ও বান্দরবানে ৩ ইয়াবা কারবারি ধরা খেলো বাঁশখালীতে, ১৯২৮৫ ইয়াবা ও দুই মোটরসাইকেল জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৯,২৮৫ পিস ইয়াবাসহ কক্সবাজার ও বান্দরবানের ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা ইয়াবা পরিবহণের কাজে ব্যবহ্নত ২টি মোটরসাইকেলও জব্দ করে।

ধৃত তিন মাদক কারবারি হলেন টেকনাফ উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ দক্ষিণ পাড়ার মো. রহিম উল্লাহর ছেলে মো. জাহিদ উল্লাহ (৩০), পার্বত্য বান্দরবান জেলার আলীকদম উপজেলার আলীকদম এলাকার মো. আবু সৈয়দের ছেলে মো. মঞ্জুুরুল আলম (৩০) ও কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও এলাকার মো. সাগরের ছেলে মোঃ ইসমাইল (১৯)।

জানা যায়, চট্টগ্রাম র‌্যাব-৭ গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মোটরসাইকেলে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য নিয়ে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের দিকে আসছে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে গত ২০ নভেম্বর সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটের দিকে র‌্যাব-৭ এর একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার আনোয়ারা-বাঁশখালী সড়কে তৈলার দ্বীপ ব্রীজ টোল প্লাজার পাশে তেচ্ছিপাড়া নামক স্থানে পাকা রাস্তার উপর একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করে। এ সময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা দুইটি মোটরসাইকেলের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা মোটরসাইকেল থামানোর সংকেত দেন। কিন্তু তারা মোটরসাইকেল দুটি র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে না থেমে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে।

কক্সবাজার ও বান্দরবানে ৩ ইয়াবা কারবারি ধরা খেলো বাঁশখালীতে, ১৯২৮৫ ইয়াবা ও দুই মোটরসাইকেল জব্দ
ইয়াবা কারবারিদের ব্যবহৃত দুইটি মোটর সাইকেল

র‌্যাব সদস্যরা পিছু নিয়ে তিনজন মোটর সাইকেল আরোহী মো. জাহিদ উল্লাহ (৩০), মো. মঞ্জুুরুল আলম (৩০) ও মো. ইসমাইলকে আটক করে।

র‌্যাব সুত্র মতে, ধৃত তিন যুবককে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাদের দেখানো ও সনাক্ত মতে নিজেদের হেফাজতে থাকা ট্রাভেল ব্যাগের ভিতরে বিশেষ কায়দায় রক্ষিত অবস্থায় ১৯,২৮৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় তাদের গ্রেফতার করা হয় এবং ওই মোটরসাইকেল দুইটি (চট্রো মেট্টো হ-১৬-৯৩৬৬ এবং অপরটি নম্বরবিহীন) জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে পরবর্তীতে বিভিন্ন কৌশলে চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদের নিকট বিক্রি করে আসছে।

গ্রেফতার করা আসামি ও উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।