‘ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রবাজের ঠাঁই হবে না’, বললেন আর্মড পুলিশ প্রধান মোশারফ

‘ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রবাজের ঠাঁই হবে না’, বললেন আর্মড পুলিশ প্রধান মোশারফ

নুরুল হক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

‘ক্যাম্পে কোন মাদক ও অস্ত্রবাজের ঠাঁই হবে না’ উল্লেখ করে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক (এডিশনাল আইজিপি) মোশারফ হোসেন বলেছেন, ‘ক্যাম্পে যাতে কোন অপরাধী আশ্রয় নিতে না পারে সে-ব্যাপারে সর্তক থাকতে হবে।

শুক্রবার (৯ অক্টোম্বর) দুপুরে টেকনাফের নয়াপাড়া, শালবন ও পুটিবনিয়া নামক রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরির্দশনে এসে এপিবিএনের প্রধান এসব কথাগুলো বলেছেন।

এসময় তিনি ক্যাম্প ঘুরে দেখেন এবং সাধারণ রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন।

এর আগে ক্যাম্পে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

এডিশনাল আইজিপি মোশারফ হোসেন বলেন, ‘ক্যাম্পের লোকজন যাতে কোন অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে না পড়ে, সেদিকে দৃষ্টি রাখতে হবে। ইতিমধ্যে ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রধারীর বিরুদ্ধে অভিযান চলমান করা হয়েছে। ক্যাম্পসহ আশপাশ এলাকায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকলকে দায়িত্বের সঙ্গে কাজ করতে হবে।’

এপিবিএন প্রধান বলেন, ‘তাছাড়া মাঝিরা যাতে অপরাধের সঙ্গে না জড়ায়, নজরদারি বাড়ানো হবে। সকল অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।’

অস্ত্র ও মাদক বিস্তার রোধে কঠোর প্রদক্ষেপ গ্রহনের নির্দেশ দেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধি টেকনাফের নয়াপাড়া রেজিষ্টার্ড ক্যাম্প, ক্যাম্প-২৪ (লেদা), ক্যাম্প-২৫ (আলী খালী) ইনচার্জ মো. আবদুল হান্নান, কক্সবাজারে ১৬’র ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মো. সোহেল রানা, উখিয়া সার্কেল শাকিল আহমেদ, টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান, নয়াপাড়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরির্দশক রকিবুল ইসলাম।

সাম্প্রতিক সময়ে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। রোহিঙ্গাদের মধ্যে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, ইয়াবা ও ক্যাম্পভিত্তিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রতিনিয়ত সংঘর্ষের কারণে এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। এতে সাধারণ রোহিঙ্গা ও স্থানীয়রা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। গত সপ্তাহজুড়ে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চলমান সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন এক বাংলাদেশি ও ৭ রোহিঙ্গা। আহত হয়েছে শতাধিক মানুষ।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!