বিদায় নেয়া পুলিশ কর্মকর্তাদের কক্সবাজারে আর ঢুকতে দেয়া হবে না

মহিউদ্দিন মাহী
প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারে জেলা পুলিশে সদ্য যোগদান করা পুলিশশের কাজে গতিশীলতা ও পেশাদারিত্ব বাড়াতে কক্সবাজারে এসেছেন চট্টগ্রামের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।

তিনি মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পরিদর্শনের পর এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

ওই সময় তিনি বলেন, জেলা পুলিশে নতুন ভাবে যোগদান করা সব পুলিশই মানসিক ভাবে প্রস্তুত হয়ে এসেছেন। এখানকার মাদক, চোরাচালান নির্মুল করা হবে। সবাই নতুন, সবাই অপরাধ প্রবনতা দুর করতে চ্যালেঞ্চ গ্রহণ করেছেন। মাদক ও আইনশৃঙ্গলা বিঘ্ন হয় এমন কর্মকান্ড নিয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা কাজ করবেন। এই জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাদের নিয়ে পৃথক ভাবে কাজ করবেন।

তিনি আরও বলেন, দিনে রাতে যে সব এলাকায় অপরাধ হয় সেখানে পেট্রলিং বাড়ানো হবে। মাদক ব্যবসার সাথে যারা যড়িত আছে তাদের নতুন করে তালিকা করবো এবং আগে কিভাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল, কি মামলা আছে সকল প্রোফাইল যাছাই করে সেখানে কড়া ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বলেন, ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মাদক নির্মুলের যে কথা বলা হয়েছিল এটি এখন নতুন পুলিশ সুপার সার্বিক পরিস্থিতি, বিচার বিশ্লেষণ করে উনি উনার লক্ষ্য ঠিক করবেন। আমরা যারা মাদক নিয়ে কাজ করি মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরসহ এখানে ট্রাস্কফোর্স আছে তাদের সাথে মিটিং করে আমরা আমাদের কাজগুলো শুরু করবো। জেলা পুলিশ সুপার বাস্তবতা বিশ্লেষণ করে সব কিছু নির্ধারণ করবেন।

কক্সবাজারে জেলা পুলিশে যারা দায়িত্ব পালন করেন তারা বারবার এই জেলাতেই কাজ করতে চায়। সেক্ষেত্রে তারা কি আবারো চট্টগ্রামে আসতে পারবেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ডিআইজি বলেন, আমি যতোদিন দায়িত্বপালন করি চট্টগ্রামের সেই ট্রেডিশন চলবে না। যেহেতো এটি আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে একই থানায় কাজ করা কিংবা তার পাশ্ববর্তী থানায় যাতে কাজ করতে না পারে সেই ধরণের ম্যানেজমেন্টে যাচ্ছি।

কক্সবাজারের সীমান্ত নিয়ে পরিকল্পনা করে কাজ করতে হবে জানিয়ে ডিআইজি বলেন, এই দায়িত্বে আরো যারা আছেন, তাদের সহযোগিতা নিতে হবে এবং স্থানীয় মানুষের সহযোগিতা পেলেই সহজেই মাদক নির্মুলে আনা সম্ভব হবে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!