নামাজের মধ্যেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করলেন কলেজছাত্র ইভান

নামাজের মধ্যেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করলেন কলেজছাত্র ইভান

‘আসরের নামাজের সময় গোঙানির শব্দ শুনে দ্রুত নামাজ শেষ করি। সালাম ফিরিয়ে দেখি ইভান মসজিদে লুটিয়ে পড়ে আছে। দ্রুত তাকে দাগনভূঞার একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে নেয়া হয়। সেখান থেকে পাঠিয়ে দেয়া হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার জানান ইভান মারা গেছে।’

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার দেবরামপুর গ্রামের চাকলাদার বাড়ির হোসনে মোবারক ইভানের (২২) মৃত্যুর ঘটনাটি এভাবেই বর্ণনা করেন মোহাম্মদ আলী জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা শাফায়াত হোসেন।

বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) আসরের নামাজের সময় এ ঘটনা ঘটে।

মাওলানা শাফায়াত হোসেন বলেন, শব্দ শুনে আমরা মনে করেছি, হয়ত বয়স্ক কেউ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ইভানকে দেখে সবাই হতবিহবল হয়ে পড়েন। বাড়ি থাকলে ইভান এই মসজিদে নিয়মিত নামাজ পড়তেন।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য আবদুল কুদ্দুছ বলেন, এমন ভালো ছেলে এখন খুবই বিরল। ইভান শান্ত, ভদ্র ও ধার্মিক ছিল। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এদিকে শুক্রবার (১৫ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বাবা আবুল হাসেমের কবরের পাশেই দাফন করা হয় ইভানকে। জানাজায় ইমামতি করেন তার মামা দেবরামপুর মৌলভী শামসুল হক দাখিল মাদরাসার সুপার মুফতি আনোয়ার হোসেন। জানাজা শেষে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

দুই ভাইয়ের মধ্যে ইভান ছিল বড়। তিনি দাগনভূঞা সরকারি ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজে বিবিএ ২য় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!