মেজর সিনহা ও সহযোগীদের মালামাল র‌্যাবকে দিল রামু থানা পুলিশ

মেজর সিনহা ও সহযোগীদের মালামাল র‌্যাবকে দিল রামু থানা পুলিশ

মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক, রামু
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

টেকনাফের মেরিন ড্রাইভে পুলিশের গুলিতে নিহত মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খানের সহযোগী সিফাত ও শিপ্রার জব্দ করা মালামাল তদন্তের স্বার্থে র‌্যাবের তদন্ত দলের কাছে হস্তান্তর করেছে কক্সবাজার জেলার রামু থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে র‌্যাবের প্রতিনিধিদের হাতে এসব মালামাল তুলে দেয়া হয়।

এরআগে ১৯ আগস্ট (বুধবার) র‌্যাবের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে এই সংক্রান্ত আদেশ দেন কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিমান চন্দ্র কর্মকারের নেতৃত্বে র‍্যাবের একটি প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার রাতে রামু থানা থেকে এসব মালামাল গ্রহণ করেন। এসময় রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে জব্দকৃত সব মালামাল র‍্যাবের তদন্তকারি কর্মকর্তাকে হস্তান্তর করতে রামু থানা পুলিশকে আদেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আদালত নম্বর-১) রামুর বিচারক মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই (শুক্রবার) রাত সাড়ে ১০টার পর টেকনাফের মেরিন ড্রাইভে একটি প্রামাণ্যচিত্রের শুটিং শেষে ফেরার পথে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হন। এসময় তার সাথে থাকা সহযোগী সিফাত ও পরবর্তীতে হিমছড়ির একটি রিসোর্টে অভিযান চালিয়ে তার আরেক সহযোগী শিপ্রা দেবনাথকে আটক করে পুলিশ।

এরপর তাদের কাছে থাকা ল্যাপটপ, ক্যামেরাসহ যাবতীয় মালামাল জব্দ করে পুলিশ। সেইসাথে তাদের অভিযুক্ত করে হত্যাচেষ্টা ও মাদকের মামলা দায়ের করা হয়।

এ ঘটনার পর পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ উঠলে পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন নিহত মেজর (অব.) সিনহার বোন। পরবর্তীতে এই মামলার তদন্তভার র‌্যাবের কাছে দেন আদালত।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!