‘ইয়াবার লেনদেন’ নিয়ে গোলাগুলিতেই মৃত্যু ৪ মাদক কারবারির!

‘ইয়াবার লেনদেন’ নিয়ে গোলাগুলিতেই মৃত্যু ৪ মাদক কারবারির!

নুরুল হক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে দুই মাদক গ্রুপের মধ্যে ইয়াবা লেনদেনকে কেন্দ্র করে ‘গোলাগুলি’র ঘটনায় ৪ জন মাদক কারবারির মৃত্যু হয়েছে। এমনটাই দাবি করছে টেকনাফ থানা পুলিশ।

২৮ জুলাই (মঙ্গলবার) ভোর রাতে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পূর্ব সাতঘড়িয়া পাড়ায় ঘটা ওই ‘গোলাগুলি’র ঘটনায় নিহতদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ বলছে, নিহতরা মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। নিজেদের মধ্যে ইয়াবাকে কেন্দ্র করে ‘গোলাগুলি’র ঘটনায় তারা মারা যান।

ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, দুটি এলজি এবং গুলি উদ্ধার করা হয়েছে, দাবি করছে পুলিশ।

এই ঘটনায় নিহতরা হলেন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের সাতঘরিয়া এলাকার মো. ইসমাইল (২৫) ও আনোয়ার হোসেন (২২), খারাংখালী এলাকার মো. নাছির (২৩) এবং পূর্ব মহেশখালীয়া পাড়ার মো. আনোয়ার (২৪)। এদের মধ্যে কোন রোহিঙ্গা নাগরিক রয়েছেন কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে জানান, ওই ইয়াবা কারবারীরা মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান এনে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের খারাংখালি সীমান্তে মজুদ রাখে। এসময় ইয়াবার লেনদেন নিয়ে তাদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ইয়াবা কারবারীরা পুলিকেও লক্ষ্য করে গুলি করে। পরে আত্মরক্ষায় পুলিশও পাল্টা গুলি করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ ওই ৪ ব্যক্তিকে উদ্ধার করে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি জানান, ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার ইয়াবা, দুটি এলজি এবং গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতিতে মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!