কচ্ছপিয়ার শিশু ধর্ষণকারি লালু জেলহাজতে, মামলা

কচ্ছপিয়ার শিশু ধর্ষণকারি লালু জেলহাজতে, মামলা

মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু, নাইক্ষ্যংছড়ি
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে ৪ বছরের শিশু ধর্ষণের ঘটনায় অবশেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) রাতে শিশুটির বাবা মোঃ শাহজাহান বাদী হয়ে রামু থানায় এই মামলাটি দায়ের করেন। বুধবার (১৫ জুলাই) গর্জনিয়া ফাঁড়ি পুলিশের হেফাজতে থাকা ধর্ষক নরপশু নাছির উদ্দীন লালুকে পুলিশ গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোর্পদ করেছে।

শিশু ধর্ষণের এই ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া ধর্ষক নরপশুর উপযুক্ত বিচার দাবি করেছেন শিশুটির পরিবার ও এলাকাবাবি।

স্থানীয় মেম্বার মোঃ ইউনুছ কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে জানান, তিনি বিষয়টি প্রথমে শুনে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। পরে পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে নাছির উদ্দীন ওরফে লালুকে (১৮) জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যান।

গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ আনিছুর রহমান কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে জানান, পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লালু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

উল্লেখ্য, গত রোববার (১৩ জুলাই) শিশুটি বাড়ির পাশে খেলা করছিল। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে লালু অবুঝ শিশুটিকে ঝাপটে ধরে ধর্ষণ করে। এসময় শিশুটির চিৎকারে এলাকাবাসি এগিয়ে আসলে লালু পালিয়ে যাওয়ার সময় তাকে ধরে ফেলেন জনতা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওইদিনই ধর্ষক নরপশু লালুকে পুলিশের হেফাজতে নিয়ে আসে।

পুলিশ বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করায় শিশুটির পরিবার, এলাকাবাসি ও সুশীল সমাজ রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের ও আইসি মোঃ আনিছুর রহমানকে সাধুবাদ জানান।

শিশুটির বাবা শাহজাহান কান্নাজড়িত কন্ঠে সাংবাদিকদের বলেন, তার ৪ বছরের অবুঝ শিশু মেয়েকে ধর্ষণের ঘটনায় ন্যায়বিচার চেয়ে প্রশাসনের কাছে ধর্ষককে ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি।

এ সংবাদ লেখাকালিন পর্যন্ত শিশুটি কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!