মহেশখালীর চিংড়ি ঘেরে আত্মগোপনে ছিলেন ‘প্রতারক’ সাহেদ!

‘প্রতারণার শিল্পী’ রিজেন্ট শাহেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক, আলোচিত প্রতারক সাহেদ করিম গ্রেপ্তার এড়াতে আত্মগোপন করেছিল কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীতে। সাহেদ গ্রেপ্তারের পর র‍্যাবের বরাত দিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় এমন খবরই প্রকাশিত হয়েছে।

এরপর থেকে আলোচিত প্রতারক সাহেদকে নিয়ে মহেশখালীজুড়ে চলছে তুমুল আলোচনা। স্থানীয়দের কেউ কেউ বলছেন, মহেশখালীর ধলঘাটার মাছের একটি চিংড়ি ঘেরে ৬ থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত আত্মগোপনে ছিলেন সাহেদ। সেখান থেকে নৌপথে সাহেদ রওনা দেন তার গন্তব্যে।

তবে এ বিষয়ে নির্ভরযোগ্য কোন তথ্য করো কাছে নেই। এরপরও আলোচনা থেমে নেই।

একই সাথে আলোচনা হচ্ছে কক্সবাজার বা মহেশখালীতে প্রতারক সাহেদকে আশ্রয় দেয়ার মতো তার এমন ঘনিষ্ট কে হতে পারেন?

‘রিজেন্ট’ সাহেদকে ধরতে মৌলভীবাজারে র‌্যাব-পুলিশ

মহেশখালীর স্থানীয় সাংবাদিক রকিত উল্লাহ বলেন, মহেশখালীজুড়ে এখন সাহেদের গল্প। চায়ের দোকান, হাটবাজার সবখানে একটাই আলোচনা সাহেদ মহেশখালীতে কার আশ্রয়ে ছিল?

রকিয়ত উল্লাহ আরও জানান, ধলঘাটার একটি চিংড়ি ঘের ও সাইক্লোন শেল্টারে সাহেদের মতো দেখতে একজনকে গত ৬ থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত দেখা গেছে বলে স্থানীয়দের মাঝে আলোচনা চলছে। তবে ঠিক কার চিংড়ি ঘেরে সে থাকতো, তা জানা যায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কক্সবাজারস্থ র‍্যাব-১৫ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ বলেন, এই ধরণের কোন তথ্য এ পর্যন্ত আমাদের কাছে নাই। স্থানীয়দের উড়ো খবর একবারে উড়িয়েও দেয়া যায় না, আবার সত্য বলে ধরে নেয়াও যায় না বলে মন্তব্য করেন র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!