নাফনদীর সীমান্তে বিজিবির গুলিতে দুই রোহিঙ্গা মাদকপাচারকারী নিহত

টেকনাফ সীমান্তে বিজিবি’র গোলাগুলিতে দুই রোহিঙ্গা মাদকপাচারকারী নিহত হয়েছে। ওই ঘটনায় ২ বিজিবির সদস্য আহত হয়েছেন।
এসময় উদ্ধার করা হয়েছে অস্ত্র,গুলি ও বিপুল পরিমান ইয়াবা।
টেকনাফ ২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) জানান, রবিবার (৫ জুলাই) রাত ১১টার দিকে ইয়াবা পাচারের গোপন সংবাদে ভিত্তিতে উপজেলা হ্নীলা ইউনিয়ন ওয়াব্রাং নানীর বাড়ী নামক নাফনদী সীমান্তে বিজিবি’র একটি বিশেষ টহল দল উক্ত এলাকায় অভিযানে যায়।
কিছুক্ষণ পর ২/৩জন ব্যাক্তিকে নাফনদী সাঁতরিয়ে উপকুলের দিকে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাদেরকে আটক করার জন্য সামনের দিকে এগিয়ে গেলে আড়ালে উৎপেতে থাকা তাদের সহযোগীরা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ী গুলিবর্ষন শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে বিজিবি পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের গোলাগুলি থেমে যাওয়ার পর ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষনা করে।
নিহত দুই রোহিঙ্গা যুবক হচ্ছে, উখিয়া কুতুপালং ৫নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা মোঃ শফির পুত্র মোঃ আলম(২৬), বালুখালী ২নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১৮নং ব্লকের বাসিন্দা মোঃ এরশাদ আলীর পুত্র মোঃ ইয়াসিন(২৪)।
এ ঘটনায় দুই বিজিবি সদস্য আহত হয় ও ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ৫০ হাজার ইয়াবা, ১টি চায়না পিস্তল, ২টি তাজা গুলি উদ্ধার করে বিজিবি৷

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!