অনলাইনেও জমা দেওয়া যাবে করোনা পরীক্ষার ফি, তৈরি হচ্ছে অ্যাপ

সরকারি হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার জন্য সরকার নির্ধারিত ফি অনলাইনে জমা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এজন্য তৈরি করা হচ্ছে একটি মোবাইল অ্যাপ। তবে এর পাশাপাশি নমুনা সংগ্রহের স্থানে ক্যাশ মেমোর মাধ্যমেও ফি পরিশোধ করা যাবে। এই ফি সরাসরি জমা হবে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে।

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এই তথ্য জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘বুধবার একটি নির্দেশনা দেশের সব উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, সিভিল সার্জন, বিভাগীয় পরিচালক এবং সব হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক, জেলা হাসপাতাল এবং অন্যান্য সব হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কদের আমরা জানিয়েছি। আমরা বলেছি, যে স্থানে নমুনা সংগৃহীত হবে, সেখানে সরকারি ফি ক্যাশ মেমোর মাধ্যমে গ্রহণ করা হবে। সরকারি কোষাগারের যে নম্বর দেওয়া আছে পরিপত্রে সেখানেই জমা হবে এই ফি। তবে স্বাস্থ্য অধিদফতর একটি অ্যাপ তৈরি করার জন্য কাজ করছে। অ্যাপ তৈরি হলে এর মাধ্যমেও অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা হবে।’

সরকারি প্রতিষ্ঠানে করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে বুথে বা হাসপাতালে নমুনা দিয়ে আসলে পরীক্ষার ফি ২০০ টাকা। কারো বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হলে পরীক্ষার ফি ৫০০ টাকা এবং হাসপাতালে ভর্তি রোগীর পরীক্ষায় ২০০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। সব সরকারি হাসপাতালের ক্ষেত্রে উল্লেখিত হারে ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এই আদেশ কার্যকর হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তবে বেসরকারি হাসপাতাল ও প্রতিষ্ঠান করোনা পরীক্ষার ফি নেবে আগের মতোই। বাসায় গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করলে এক হাজার টাকা এবং পরীক্ষার ফি লাগবে সাড়ে তিন হাজার টাকা। সবমিলিয়ে সাড়ে চার হাজার টাকা। আর রোগী যদি হাসপাতাল বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে নমুনা জমা দেন, তাহলে তা পরীক্ষার ফি লাগবে সাড়ে তিন হাজার টাকা।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!