বুকে ব্যথা নয়, রুটিন টেস্টের জন্য হাসপাতালে যাবেন মাশরাফি

বারবার ইনজুরি জয় করে বীরের মত মাঠে ফেরা মাশরাফি বিন মর্তুজা গত শনিবার করোনা পজিটিভ হলেও বাসায়ই আইসোলেশনে ছিলেন। সোমবার দুপুর গড়ানোর আগে হঠাৎ গুঞ্জন, সন্ধ্যা নাগাদ হাসপাতালে নেয়া হতে পারে দেশের ক্রিকেটের এ জীবন্ত কিংবদন্তিকে।

তবে হাসপাতালে স্থানান্তর নিয়ে আসলে দু ধরনের বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। একটি সূত্র জানিয়েছে, হঠাৎ বুকে ব্যথা দেখা দেওয়ায় মাশরাফিকে হাসপাতালে স্থানান্তরের চিন্তাভাবনা চলছে।

আরেকটি সূত্র বলছে, যেহেতু মাশরাফির অল্পবিস্তর অ্যাজমার সমস্যা রয়েছে তাই চিকিৎসক তাকে পরামর্শ দিয়েছে বুকের ও অন্যান্য কিছু রুটিন টেস্ট করাতে। একটি নির্ভরযোগ্য সুত্র নিশ্চিত করেছে, সেই টেস্ট করাতেই সন্ধ্যায় হাসপাতালে যেতে পারেন মাশরাফি।

কোন হাসপাতালে যাবেন মাশরাফি?- তা নিয়েও শোনা যাচ্ছে দু’রকম খবর। এক পক্ষ বলছে কম্বাইন্ড মিলিটারি হাসাপাতালে (সিএমএইচ) নেয়া হবে। অপরপক্ষের দাবি শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রো লিভার হাসপাতালে যেতে পারেন মাশরাফি।

তবে এটা ঠিক মাশরাফির আগে থেকেই কিছুটা অ্যাজমার সমস্যা রয়েছে। খেলোয়াড়ি জীবনে বহুদিন তাকে প্র্যাকটিসের সময় ব্যাগে ইনহেলার বহন করতেও দেখা গেছে। কাজেই বাড়তি সতর্কতার কারণেই হয়তো পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে যেতে পারেন জাতীয় দলের এ সফলতম অধিনায়ক।

এদিকে মাশরাফির করোনা পজিটিভের খবর জানলেও মাশরাফির চিকিৎসার ব্যাপারে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী কিছু জানেন না। এই পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য নাকি সত্যিই বুকে ব্যথা? আসলে কোন কারণে মাশরাফি হাসপাতালে যাবেন- তা নিশ্চিত জানাতে পারেননি দেবাশিষ চৌধুরী।

জাগো নিউজের সঙ্গে মুঠোফোন আলাপে তিনি বলেন, ‘আসলে মাশরাফির চিকিৎসার ব্যাপারে স্বয়ং বোর্ড সভাপতি (নাজমুল হাসান পাপন) কথা বলছেন। আমি যতটুকু জানি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক প্রফেসর আব্দুল্লাহ স্যারের মাশরাফিকে দেখার কথা। তবে মাশরাফি হাসপাতালে ভর্তি হবে, এমন খবর জানা নেই আমার।’