‘রেড জোন’ কক্সবাজারে এলপি গ্যাস সরবরাহ বন্ধ, কর্মচারিদের লাঞ্চনার অভিযোগ

‘রেড জোন’ কক্সবাজারে এলপি গ্যাস সরবরাহ বন্ধ, কর্মচারিদের লাঞ্চনার অভিযোগ

মহিউদ্দিন মাহী, প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার শহরে ১৪ দিনের জন্য চলছে ‘রেড জোন’ভিত্তিক লকডাউন। এই সময়ে সকল দোকানপাঠ, বাজার বন্ধ থাকার ঘোষণা দিয়েছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন। গত ৬ জুন রাত থেকে আগামী ২০ জুন পর্যন্ত চলবে এই লকডাউন। যদিও কক্সবাজার পৌর এলাকার লকডাউনের এই সময়ে গ্যাস সিলিন্ডারের দোকান বন্ধ থাকাতে বাসা বাড়িতে রান্নার প্রয়োজনীয় গ্যাস সরবরাহ নিয়ে বিড়ম্বনা পোহাতে হচ্ছে।

গ্যাস সিলিন্ডারের সরবরাহের অনুমতি চেয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক ও কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে কক্সবাজার জেলা এলপিজি ব্যবসায়ী সংগঠন।

সংগঠনের লিখিত ওই পত্রে তারা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজারে জনগণের বাসা-বাড়িতে জরুরি জ্বালানি এলপিজি গ্যাস সরবরাহ করে আসছেন। গত ২৬ মার্চ থেকে দেশে করোনা মহামারী প্রার্দুভাবের কারণে সারাদেশে লকডাউন হয়ে যায়। এই কঠিন পরিস্থিতির মাঝেও কক্সবাজার জেলা এল.পি.জি ব্যবসায়ীরা জরুরী ভিত্তিতে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সক্ষম হন।

কক্সবাজার জেলাভিত্তিক এলপিজি ব্যবসায়ী সংগঠনের দাবি, বর্তমানে গ্যাস সিলিন্ডার সরবরাহ করতে গিয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন বাধার সুম্মুখিন হতে হচ্ছে। অথচ কক্সবাজারে প্রতিদিন গ্যাসের চাহিদা ৫ হাজারের অধিক। জরুরী জ্বালানি তথা এলপিজি গ্যাসের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে না পারে তাহলে কক্সবাজারের গ্যাসের গ্রাহক ভোগান্তিতে পড়বেন।

এই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তোফাইল কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে জানান, এই লকডাউনের সময়ে মানুষের প্রয়োজনে বাড়িতে গ্যাস দিতে গিয়ে দোকানের মালিক-কর্মচারীরা মারধরের শিকার হচ্ছেন। আজ বুধবারও (১০ জুন) শহরের ১নং ওয়ার্ডের সমিতির পাড়ায় গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবসায়ী আবদুল জব্বারকে মেরেছেন স্থানীয় কাউন্সিলর আকতার কামাল। এছাড়াও বাহারছড়াতে গ্যাস দিতে গিয়ে ওয়ার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবকরা কানে ধরে উঠাবসা করিয়েছে দোকান কর্মচারীকে।

তোফাইল জানান, এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে এবং গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক ও সদর উপজেলার ইউএনও বরাবার একটি লিখিত আবেদন জানিয়েছি। সদর ইউএনও মাহমুদুল্লাহ মারুফের সাথে সরাসরি দেখাও করেছি। কোন অনুমতি মিলেনি। তাই আমরা সংগঠনের সিদ্ধান্তমতে রেড জোন কক্সবাজার শহরে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।