মৃত্যুর পরদিন জানা গেল নাগু কোম্পানীর করোনা ‘পজিটিভ’

প্রশাসনের চাপে আগেই নাগু কোম্পানির জানাযা, তারপরও প্রচুর মানুষের অংশগ্রহণ

মহিউদ্দিন মাহী, প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার শহরের আলোচিত ব্যবসায়ী ও শহরতলী খুরুশকুলের বাসিন্দা আবু সুলতান ওরফে নাগু কোম্পানীর মৃত্যুর একদিন পর অবশেষে জানা গেলো তিনি করোনাভাইরাস পরীক্ষায় ‘পজিটিভ’।

বৃহস্পতিবার ভোরে আবু সুলতান ওরফে নাগু কোম্পানী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

শুক্রবার (২৯ মে) কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে তাঁর নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শাহীন আবদুর রহমান জানিয়েছিলেন, বৃহস্পতিবার সকালে নাগু কোম্পানিকে অর্ধমৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল। হাসপাতালে আনার কিছুক্ষণ পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

ডা. শাহীন আবদুর রহমান জানান, আবু সুলতান ওরফে নাগু কোম্পানির ডায়াবেটিস ও নিউমোনিয়াজনিত সমস্যা ছিল। তার করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। তাকে করোনা বিধি মেনেই দাফন করতে বলে হয়েছিল।

এদিকে এলাকা সূত্র জানায়, নাগু কোম্পানী করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকলেও তাকে স্বাভাবিক ভাবেই গোসল-কাফন করিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। পরে বৃহস্পতিবার (২৮ মে) খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে বিকাল ৩টার দিকে জানাযা হওয়ার কথা থাকলেও প্রশাসনের কড়াকড়ি এবং মানুষের উপস্থিতি বেশি হওয়াতে এক ঘন্টা আগেই ২টার দিকে ফকির পাড়া মসজিদের ওঠানে জানাযা হয়েছে। নামাজে জানাযার ইমামতি করেন খুরুশকুলের ফকিরপাড়া মসজিদের খতিব মাওলানা জালাল উদ্দিন। জানাযা শেষে ফকির পাড়া কবরস্থানে তার মৃতদেহ দাফন করা হয়েছে।

খুরুশকুলের বিখ্যাত এই কোম্পানীর নামাজে জানাযায় অংশ নিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ পৌছালেও জানাযায় অংশ নিতে পারেননি।

কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহমুদুল্লাহ মারুফ জানান, করোনার উপসর্গ থাকায় এবং এই কঠিন সময়ে সামাজিক দুরত্ব মেনেই জানাযা পড়তে বলা হয়েছিল। একটি মসজিদের মুসল্লি ছাড়া যাতে বেশি মানুষ জড়ো হতে না পারে পুলিশের দুইটি টিমও অবস্থান নিয়েছিলো।

আবু সুলতান ওরফে নাগু কোম্পানীর নামাজে জানাযায় অংশ নিয়েছেন কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র মাহবুবুর রহমান, খুরুশকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মাবুদ,  মরহুমের ছোট ভাই সাবেক চেয়ারম্যান আমানুল হক আমান, সাবেক চেয়ারম্যান রহিম উদ্দিন,  ওই এলাকার সাবেক ছাত্র নেতা আলিম উদ্দিনসহ  বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও আত্মীয় স্বজন।

এদিকে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজহান কবির জানান, নাগু কোম্পানী খুব পরিচিত ব্যক্তি হওয়ায় দুর দূরান্ত থেকে জানাযায় বেশি মানুষ অংশ নিতে পারেন। সে কথা মাথায় রেখে শৃংখলার পুলিশের দুইটি টিম অবস্থান নিয়েছিলো।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!