কক্সবাজারে করোনায় মারা গেলেন ব্যবসায়ী নুরুল আবছার

কক্সবাজারে করোনায় মারা গেলেন ব্যবসায়ী নুরুল আবছার

আনছার হোসেন
সম্পাদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তৃতীয় ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার করোনা টেষ্টে ‘পজিটিভ’ আসার পর রাত সাড়ে ১০টায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ওই ব্যক্তি মারা যান। তিনি হলেন শহরের বাজারঘাটা মসজিদ সড়কের ব্যবসায়ি নুরুল আবছার।

ইতিপূর্বে কক্সবাজার জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের একজন কক্সবাজার শহরের তারাবনিয়ারছড়া এলাকার খোরশেদ আলম (৫২) ও অন্যজন রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের বয়োবৃদ্ধা এক মহিলা।

খোরশেদ আলম বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে নিজের বাড়িতে মারা যান। মারা যাওয়ার ১৪ ঘন্টা পর জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ ছিলেন।

কক্সবাজার সদর হাসপাতাল সুত্র মতে, বাজারঘাটা মসজিদ রোডের পরিচিতি ব্যবসায়ী, মেসার্স কাসেম এন্ড সন্স এর স্বত্ত্বাধিকারী নুরুল আবছার প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট নিয়ে বুধবার (২০ মে) কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হন। তার শ্বাসকষ্ট বেশি থাকায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশনে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। কিন্তু চট্টগ্রাম নেয়ার আগেই তিনি বৃহস্পতিবার (২১ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে হাসপাতালে মারা যান।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ও হাসপাতালের বিশেষায়িত জরুরি বিভাগের প্রধান ডা. শাহীন আবদুর রহমান সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, নুরুল আবছার নামের ওই ব্যবসায়ী হাসপাতালে ভর্তির পর তার করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে পাঠানো হয়। ‍বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ল্যাব রিপোর্টে ওই ব্যক্তির করোনা পজিটিভ আসে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় তিনি মারা যান।

সুত্র মতে, কক্সবাজার শহরের অত্যন্ত পরিচিত এই ব্যবসায়ী মেসার্স হাজী কাসেম এন্ড সন্সের মালিক। তিনি বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি কক্সবাজার জেলা শাখার সদস্য ও ডিস্ট্রিবিউটর এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার এর সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

হাজী নুরুল আবছার নামে পরিচিত এই ব্যবসায়ী কক্সবাজার শহরের বার্মিজ স্কুল সড়কে বসবাস করতেন।

প্রসঙ্গত, নুরুল আবছার হলেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া তৃতীয় রোগী। তাকে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ জনে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!