আমৃত্যু বিএনপির পতাকা উড্ডীন করে রেখেছিলেন শহীদ হোছাইন চৌধুরী, বললেন সালাহউদ্দিন আহমদ

আমৃত্যু বিএনপির পতাকা উড্ডীন করে রেখেছিলেন শহীদ হোছাইন চৌধুরী, বললেন সালাহউদ্দিন আহমদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

চকরিয়ার প্রবীণ বিএনপি নেতা ও কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ হোছাইন চৌধুরীর (৭০) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদ ও চকরিয়া-পেকুয়ার সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট হাসিনা আহমেদ।

বিএনপির এই নেতার মৃত্যুতে নেতাদ্বয় গভীর ভাবে শোকাহত। তাঁরা মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

তাঁরা মনে করেন, শহীদ হোছাইন চৌধুরীর মৃত্যুতে বিএনপি ও কক্সবাজারবাসি একজন দেশপ্রেমিক ও সমাজহিতৈষীকে হারিয়েছেন। তিনি শহীদ রাষ্ট্রপ্রতি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে বিএনপিতে এসে জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের পতাকাকে আমরণ উড্ডীন করে রেখেছিলেন।

ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলং শহর থেকে পাঠানো এক শোকবার্তায় বলেন, মরহুম শহীদ হোছাইন চৌধুরীর মৃত্যুতে চকরিয়া-পেকুয়ার বিএনপি পরিবার এক প্রবীণ, প্রাজ্ঞ রাজনীতিবিদকে হারিয়েছে।

তিনি বলেন, মরহুম চৌধুরী আমৃত্যু বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকে দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। জীবদ্দশায় তিনি এলাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠাসহ উন্নয়ন ও জনকল্যাণমুখি নানা কাজ করে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছিলেন।

সালাহউদ্দিন আহমদ মনে করেন, শহীদ হোছাইন চৌধুরীর মৃত্যুতে শুধু তিনিই শোকাহত হননি, চকরিয়া-পেকুয়ার হাজার হাজার নেতা-কর্মী শোকাহত হয়েছেন।

একই ভাবে ঢাকা থেকে এক শোকবার্তায় সালাহউদ্দিন আহমদের সহধর্মিনী ও কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট হাসিনা আহমদও গভীর শোক প্রকাশ করেন।

এই নেতাদ্বয় মহান আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ করেন, মরহুম শহীদ হোছাইন চৌধুরীর অতীতের ভুল-ত্রুটিগুলো ক্ষমা করে আল্লাহ যেন তাকে বেহেস্তের সর্বোচ্চ স্থানে মর্যাদাবান করেন।

তাঁরা শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতিও সমবেদনা প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, মরহুম শহীদ হোছাইন চৌধুরী আজ বৃহস্পতিবার (২১ মে) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত রোগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

মরহুম চৌধুরী ১৯৯১-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত কৈয়ারবিল ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। চকরিয়া উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য হিসেবে রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে রাজনীতিতে যোগ দিয়ে কক্সবাজার জেলা বিএনপির সদস্য, চকরিয়া উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতিসহ দীর্ঘদিন কৈয়ারবিল ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়াও তিনি ইসলামনগর শহীদ হোছাইন চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিতিষ্ঠা করেন। আমৃত্যু তিনি কৈয়ারবিল ইউনিয়ন বিএনপির উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বিএনপি সুত্র মতে, মরহুম শহীদ হোছাইন চৌধুরী ছিলেন সদালাপি, অমায়িক এই মানুষ। তিনি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য এবং তিনি পরবর্তীতে জেলা ও উপজেলায় বিএনপির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্বপালনসহ দীর্ঘদিন কৈয়ারবিল ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি এবং ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!