কক্সবাজার সদরের ১১ রোগীর চারজন নারী ডাক্তার আইনজীবী ব্যাংকার ও শিক্ষক

করোনা ‘হটস্পট’ চকরিয়ায় সর্বাধিক ৫৩ রোগী, সদরে ৩৫ আর দুইদিনে ৪ রোহিঙ্গা

আনছার হোসেন
সম্পাদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

করোনাভাইরাস নামের অদেখা এক শক্রু এসে কক্সবাজার জেলার প্রতিটি জনপদে তার থাবা ফেলছে। কোন শ্রেণীপেশার মানুষকেই ছাড়ছে না এই ভাইরাস। বুধবারও (২০ মে) কক্সবাজার সদরে নতুন করে ১১ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে আছেন একজন মহিলা চিকিৎসক, একজন আইনজীবী, একজন ব্যাংকার ও একজন স্কুল শিক্ষক। এছাড়াও একজন করোনা পরীক্ষার ফলাফল আসার ১৪ ঘন্টা আগে নিজের বাড়িতেই মারা গেছেন। অন্য ৬ জন সাধারণ শ্রেণীর মানুষ।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের নির্ভরযোগ্য একটি সুত্র কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওই সুত্র মতে, বুধবার শনাক্ত হওয়া কক্সবাজার সদরের ১১ করোনা রোগীর মধ্যে কক্সবাজার শহরের টেকপাড়ার অধিবাসী একজন মহিলা ডাক্তার, পাহাড়তলী এলাকার একজন আইনজীবী, কক্সবাজার সোনালী ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা ও কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক রয়েছেন।

অপরদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ১৭ মে কক্সবাজার শহরের তারাবনিয়ারছড়ার বাসিন্দা খোরশেদ আলম (৬২) নামের এক ব্যক্তি নমুনা জমা দেন। কিন্তু নমুনার টেষ্ট রিপোর্ট আসার আগেই আজ বুধবার (২০ মে) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে নিজের বাড়িতেই মারা গেছেন। পরে এ দিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাব থেকে রিপোর্ট আসার পর জানা যায়, মারা যাওয়া খোরশেদ আলম ‘করোনা পজিটিভ’ ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০ মে পর্যন্ত কক্সবাজার সদরে ৭৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তবে কক্সবাজার জেলায় সর্বাধিক ৮৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ায়।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!