কক্সবাজার শহরে হু হু করে বাড়ছে করোনা রোগী, সদরে ৬ জনই শহরের বাসিন্দা ও একজন পেকুয়ার

তিনজনের দুইজন রোহিঙ্গা, অন্যজন এনজিও ‘ইপসা’র ফিল্ড ফ্যাসিলেটর

মহিউদ্দিন মাহী, প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

সংক্রমিত রোগ করোনাভাইরাসের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে কক্সবাজারে। জেলার চকরিয়া উপজেলার পর নতুন করে করোনার ‘হটস্পট’ হচ্ছে পর্যটন শহর কক্সবাজার। শনিবার (১৬ মে) কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে কক্সবাজার সদর উপজেলার ৬ জনের করোনা ‘পজিটিভ’ হওয়াদের মধ্যে ৫ জনই কক্সবাজার শহরের। বাকি একজন পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের বাসিন্দা।

তাদের মধ্যে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আউটডোরে এসে সন্দেহভাজন ৪ জন নমুনা দিয়েছিলেন আর দুইজনের নমুনা নিয়োছিল কক্সবাজার সদর উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

নতুন করে করোনাভাইরাসে শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে দুইজন মহিলা ও চারজন পুরুষ রয়েছেন।

এদের মধ্যে ৩৫ বছর বয়সী এক নারী শহরের ঝাউতলা গাড়ির মাঠ এলাকার বাসিন্দা, টেকপাড়া এলাকার ৪২ বছরের একজন পুরুষ, টেকপাড়ার ৩০ বছর বয়সী এক গৃহবধূ, ঘোনারপাড়া এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের ৩২ বছরের এক যুবক, ঝিলংজা ইউনিয়নের বাংলাবাজারের মোক্তারকুল এলাকার এক বাসিন্দা ও পেকুয়া উপজেলার ৩৪ বছর বয়সি এক যুবক সদর হাসপাতালে নমুনা দিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে টেকপাড়া এলাকার ৩০ বছরের বছর বয়সী নারী তার স্বামী থেকে সংক্রমিত হয়েছেন। এর আগে তার স্বামী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এই নারী ইতিমধ্যে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আরপি ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. ইয়াসিন আরফাত জানান, নতুন করে আক্রান্ত এই নারী করোনা উপসর্গ নিয়ে এসেছিলেন সদর হাসপাতালে। পরবর্তীতে তাকে ভর্তি দিয়ে নমুনা নেয়া হয়েছিল। শনিবার কমেকের ল্যাব থেকে তার রিপোর্টে পজিটিভ আসে।

তিনি জানান, তার উপসর্গ অনুযায়ী চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে স্বামীর কাছ থেকে সংক্রমিত হওয়া এই মহিলাকে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!