রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২১০ শয্যার করোনা হাসপাতাল করছে ইউনিসেফ

মিয়ানমারকে ২৫ হাজার রোহিঙ্গার নতুন তালিকা দিল বাংলাদেশ

বিশ্ব ডেস্ক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

করোনার চিকিৎসার জন্য কক্সবাজারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবিরে চিকিৎসাকেন্দ্র বানাচ্ছে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ।

২১০ শয্যাবিশিষ্ট একটি চিকিৎসাকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। সেখানে আইসোলেশনের ব্যবস্থাও থাকবে। ওই ক্যাম্পে দু’জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ার পর ইউনিসেফের তরফ থেকে এমন ঘোষণা দেওয়া হলো।

প্রতিবেশী মিয়ানমার থেকে পালিয়ে লাখ লাখ রোহিঙ্গা কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছে। ২০১৭ সালের আগস্টে মিয়ানমারে অভিযান চালায় সেনাবাহিনী।

মিয়ানমার সেনাদের অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে বাঁচতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় রোহিঙ্গারা। বর্তমানে শরণার্থী শিবিরে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা বসবাস করছে।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাই কমিশনার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা শিবিরে একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। অপরদিকে ওই ক্যাম্পের কাছাকাছি এক বাংলাদেশিও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

শরণার্থী শিবিরে যারা করোনায় আক্রান্ত হবেন তাদের সেবা দিতেই নির্মাণ করা হচ্ছে ইউনিসেফের এই হাসপাতাল। কবে থেকে হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শুরু হবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!