চকরিয়ায় ভোররাতে বিপনী বিতানে অভিযান, ১২৪৫০০ টাকা জরিমানা ও তিন কর্মচারী ধরা

চকরিয়ায় ভোররাতে বিপনী বিতানে অভিযান, ১২৪৫০০ টাকা জরিমানা ও তিন কর্মচারী ধরা

ছোটন কান্তি নাথ, চকরিয়া
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

করোনার বিস্তার ঠেকাতে কক্সবাজারের চকরিয়ায় ব্যবসায়ী সমিতি ও মার্কেট মালিকদের সিদ্ধান্ত অমান্য করে সেহেরী খাওয়ার পর কিছু অসাধু ব্যবসায়ী দোকান খুলে বসায় এবার প্রশাসন সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) ভোররাত সাড়ে চারটা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের চালানো এই অভিযানে নির্দিষ্ট সময়ের আগে এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৭টি মামলায় নগদ ১ লাখ ২৪ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। একইসঙ্গে তিনজন দোকান কর্মচারীকেও আটক করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানান, স্বাস্থ্যবিধি না মানা ছাড়াও সরকারের নির্দিষ্ট সময়ের আগে দোকান খুলে ব্যবসা করায় চকরিয়া পৌর শহরের চিরিঙ্গা এবং চিরিঙ্গা ইউনিয়নের পাইকারি মার্কেট, কাপড়ের দোকান, দর্জি পল্লী, জুয়েলারী দোকান, ঢেউটিনের দোকানসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এই অভিযান চালানো হয়।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১৭টি মামলা রুজু এবং তাদের কাছ থেকে নগদ ১ লাখ ২৪ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। আটক করা হয় তিনজন কর্মচারীকে।

এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে অপ্রয়োজনীয় জমায়েত ও আড্ডাস্থল ছত্রভঙ্গ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ শামসুল তাবরীজ এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন। এ সময় থানার একদল পুলিশও আদালতকে সহায়তা দেন।

আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও সৈয়দ শামসুল তাবরীজ কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে বলেন, ‘সরকারি আদেশ অমান্য করে নির্দিষ্ট সময়ের আগে দোকান খুলে ব্যবসা পরিচালনাসহ স্বাস্থ্যবিধি না মানায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এই অভিযান প্রতিদিনই পরিচালনা করা হবে। কোন অবস্থায় অনিয়ম ছাড় দেয়া হবে না।’

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!