আইসিইউতে আগুন, অ্যাভেন্টা-এম ভেন্টিলেটর নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

রাশিয়ার একটি হাসপাতালের আইসিইউতে ভেন্টিলেটরে অগ্নিকাণ্ডে ছয় করোনা রোগীর প্রাণহানির পর দেশটি অ্যাভেন্টা-এম মডেলের ভেন্টিলেটর ব্যবহার স্থগিত করেছে। দেশটিতে কয়েকদিনের ব্যবধানে অন্তত দুটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে; যেগুলোর সঙ্গে এই ভেন্টিলেটরের সম্পৃক্ততা রয়েছে।

বুধবার দেশটির স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের এক বিবৃতিতে অ্যাভেন্টা-এম মডেলের ভেন্টিলেটর ব্যবহার স্থগিতের নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার সেন্ট পিটার্সবার্গের একটি হাসপাতালের আইসিইউতে অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৬ করোনা রোগী মারা যান। অগ্নিকাণ্ডের এই ঘটনায় হাসপাতালটির অন্য ১৫০ রোগীকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়। এর মাত্র তিনদিন আগে মস্কোর একটি হাসপাতালের আইসিইউতে ভেন্টিলেটরে আগুন ধরলে একজন করোনা রোগী মারা যান।

আইসিইউর ভেন্টিলেটরের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত্র হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন দেশটির কর্মকর্তারা। উভয় হাসপাতালেই অ্যাভেন্টা-এম ভেন্টিলেটর ব্যবহার করা হয়েছিল বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

রাশিয়ার সরকারি মালিকানাধীন প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান রসটেকের সহযোগী প্রতিষ্ঠান কেআরইটি অ্যাভেন্টা-এম ভেন্টিলেটর উৎপাদন করে। দেশটির হাসপাতালগুলোতে ভেন্টিলেটরের প্রধান সরবরাহকারী এই প্রতিষ্ঠানটি।

চলতি বছরে রাশিয়ার বিভিন্ন হাসপাতালে ৬ হাজার ৭১১টি ভেন্টিলেটর সরবরাহ করেছে কেআরইটি। গত এপ্রিলে এই প্রতিষ্ঠানটি তাদের দৈনিক ভেন্টিলেটর উৎপাদন সক্ষমতা বাড়ানোর ঘোষণা দেয়। আগে দিনে মাত্র ১০ টি ভেন্টিলেটর উৎপাদন করলেও বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানটি ১০০টি করছে।

এপ্রিলে অ্যাভেন্টা-এম ভেন্টিলেটরের একটি চালান যুক্তরাষ্ট্রকে সহায়তা হিসেবে পাঠিয়ে দেয় রাশিয়া। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র এসব ভেন্টিলেটর গ্রহণ না করে ফেরত পাঠিয়ে দেয়।

এদিকে, রাশিয়ায় প্রতিনিয়ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে অন্তত ১০ হাজার ২৮ জনকে করোনা সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৪২ হাজার ২৭১ জনে। এছাড়া মারা গেছেন অন্তত ২ হাজার ২১২ জন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!