ঈদগাঁওতে আবারও এক রাতে ৬ গরু লুট

রামুতে ‘ডাকাতি স্টাইলে’ দুই রাতে ৯ গরু চুরি

আনোয়ার হোছাইন, ঈদগাঁও
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে ফের একই রাতে ৬টি গরু লুটের ঘটনা ঘটেছে। ১৩ মে ভোররাত ২টার দিকে ঈদগাঁও ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড লাল শরিয়া পাড়ায় পৃথক এই গরু লুটের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সংঘবদ্ধ অস্ত্রধারি লুটেরা দল ওই এলাকার মৃত রশিদ আহমদের গোয়াল ঘরে থেকে ২টি, গুরা মিয়ার ৩টি এবং খুরশেদ আলমের ১টি গরু লুট করে নিয়ে যায়।

রাতে লুটেরা দলের এলাকায় প্রবেশের সময় এক মাছ শিকারী দেখে ফেলায় তাকে হাত-পা বেঁধে ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রাখে।

ক্ষতিগ্রস্থ গরু মালিক গুরা মিয়া জানান, লুট হওয়া ৬টি গরুর আনুমানিক মূল্য তিন লক্ষাধিক টাকা হতে পারে।

ভুক্তভোগী এসব পরিবারে চরম হতাশা বিরাজ করছে।

এদিকে এ বিষয়ে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (পরিদর্শক) আসাদুজ্জামান রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত জানেন বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয় মেম্বার মহসিন ও মহিলা মেম্বার জান্নাতুল ফেরদৌস গরু লুটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে সচেতন এলাকাবাসীর প্রশ্ন, করোনায় দেশজুড়ে লকডাউন চলাকালে কিভাবে লুট করা গরু নিয়ে লুটেরা দল মহাসড়ক দিয়ে গাড়ি যোগে নিরাপদে চলাচল করে তার নিয়ে রহস্যের অন্ত নেই। তবে কি মহাসড়কে রাতে দায়িত্বরত পুলিশ প্রশাসনের সদস্যদের সাথে লুটেরা দলের যোগাসাজশ রয়েছে! নয়তো নিয়মিত মহাসড়ক দিয়ে লুট করা গরু নিয়ে অপরাধীরা চলাচলের পরও কেন একবারও প্রশাসনের হাতে আটক হয় না?

করোনার দুঃসহ এসময়ে জনগণের সম্পদ রক্ষায় এই অপরাধীদের অবিলম্বে আটক করতে প্রশাসনের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারণ মানুষ।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!