কক্সবাজারে আরও ৭ করোনা রোগী ‘ভালো’ হলেন, ফিরছেন বাড়িতে

‘করোনা জয়’ করে বাড়ি ফিরলেন কক্সবাজার ও নাইক্ষ্যংছড়ির ৯ জন

মহিউদ্দিন মাহী, প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

অদেখা একটি জীবাণু, যার নাম ‘কোভিড ১৯’ পুরো পৃথিবীজুড়ে কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে। এই পর্যন্ত আক্রান্ত রোগীদের সেবায় ওষুধ সৃষ্টি না হলেও কক্সবাজারের রামু ডেডিকেটেড হাসপাতাল থেকে আরও ৭ জন করোনা রোগী ভালো হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১২ মে) কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে তাদের এই ৭ জনেরই ২য় দফা রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ আসে। এর আগেও একবার তাদের নমুনা টেষ্ট করা হয়েছে।

করোনা নেগেটিভ রোগীদের মধ্যে তিনজন মহিলা ও চারজন পুরুষ রয়েছেন। তাদের মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলার জন প্রদীপ শর্মা, আবু বক্কর ছিদ্দিক, আবু ছিদ্দিক তুষার, উখিয়া উপজেলার খুরশিদা বেগম, ফাইতং মারমা, পেকুয়া উপজেলার ফাতেমা আক্তার নার্গিস ও মহেশখালী উপজেলার আরজুমান আরা।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন রামুর ডেডিকেটেড হাসপাতালের সদস্য সচিব ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া।

তিনি জানান, জাতীয় গাইডলাইন অনুযায়ী এই করোনা রোগীদের উপসর্গ অনুযায়ী চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে। তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হওয়ায় পর দুইবার নমুনা টেষ্টে নেগেটিভ এসেছে।

তিনি জানান, রামুর ডেডিকেটেড হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে এই ৭ জন ছাড়াও করোন জয় করে বাড়ি ফিরেছেন আরও ১৫ জন রোগী। সর্বমোট ২২ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন।

রামুর ডেডিকেটেড হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়েছিলেন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ও রামু হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়ালিউর রহমান। তিনি করোনা পজিটিভ রোগীদের ২য় দফা নেগেটিভ আসায় অনেক আনন্দিত হয়েছেন।

তিনি জানান, রোগীরা চাইলে আজই বাড়ি ফিরতে পারবেন। আর না হয় সকালেও যেতে পারবেন তারা।

তার মতে, বাড়িতে পৌছে তাদের আরও ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এই ১৪ দিন শেষ হলে সবাই আগের মতো মানুষের সাথে মিশতে পারবেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!