তরুণী চম্পা ধর্ষণ ও হত্যায় জড়িত আরেক ধর্ষককে ধরে পুলিশে দিল জনতা

সেই তরুণী চম্পা ধর্ষণ-হত্যার মূলহোতা সাজ্জাদ ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত, অস্ত্র উদ্ধার

মহিউদ্দিন মাহী
প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ার কোনাখালী ইউনিয়ন এলাকার বিশ্বরোডে খরুলিয়ার তরুণী চম্পাকে ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডে জড়িত আরেক ধর্ষক সাজ্জাদকে ধরে পুলিশে দিয়েছেন জনতা।

সোমবার (১১ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পেকুয়া উপজেলার শেখেরকিল্লা ঘোনা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে স্থানীয়রা পাকড়াও করেন। পরে পেকুয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাজ্জাদ ওই এলাকার আবুল হোসেন পুতুর ছেলে।

পেকুয়া থানার উপ-পরিদর্শক সনজিত চন্দ্র নাথ কক্সবাজার ভিশন ডটকমকে জানান, তরুণী চম্পা হত্যা মামলার আসামী সাজ্জাদ। গত বুধবার (৬ মে) চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের খরুলিয়ায় নিজের বাড়িতে আসছিলেন ১৯ বছরের তরুণী চম্পা। রাতে সিএনজি করে আসার পথে সিএনজি চালক ও সাজ্জাদ মিলে তাকে ধর্ষণ করে, পরবর্তীতে হত্যার উদ্দেশ্যে সিএনজি থেকে ফেলে দেয় ওই তরুণীকে।

তিনি জানান, আজ সকালে স্থানীয়রাই এই ব্যক্তিকে ধরে পুলিশকে খবর দিয়েছেন। পেকুয়া থানা পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে নিয়ে আসে।

এর আগে এই ঘটনায় একদিনের মাথায় কক্সবাজারস্থ র‌্যাব-১৫ ব্যাটালিয়ন পুরো হত্যাকান্ডটির আদ্যোপান্ত বের করেছিল। ওই ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডে জড়িত সিএনজি চালক জয়নালকে (১৮) আটক করেছিল বাহিনীটি।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!