কক্সবাজারে ফিতরা সর্বনিম্ন ৬০ টাকা, সর্বোচ্চ ১০০০ টাকা

কক্সবাজারে ফিতরা সর্বনিম্ন ৬০ টাকা, সর্বোচ্চ ১০০০ টাকা

বিশেষ প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

চলতি ১৪৪১ হিজরি বর্ষ মোতাবেক ২০২০ ইংরেজি সালে কক্সবাজার জেলায় সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি, ওলামা পরিষদ ও কক্সবাজার ইমাম পরিষদ। তাদের যৌথ সিদ্ধান্তে এবার সর্বনিম্ন ৬০ টাকা আর সর্বোচ্চ ১০০০ টাকা।

বুধবার (৬ মে) ওই তিন সংগঠনের যৌথসভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আল্লামা মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে চলতি বছরের ফিতরা নির্ধারণী এই সভায় বরেণ্য উলামাদের মতামত নিয়ে স্থানীয় বাজার দর যাচাই করে জনপ্রতি ফিতরার পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়।

তাদের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, যৌথ সভার আগে কক্সবাজারের বরেণ্য আলেমগণ বাজার দর যাচাই করেন। বর্তমান বাজারে ১৬৫০ গ্রাম আটার মূল্য ৬০ টাকা, যা নিম্নবিত্তদের জন্য প্রযোজ্য, ৩৩০০ গ্রাম খেজুরের মূল্য ৫০০ টাকা, যা মধ্যবিত্তদের জন্য প্রযোজ্য আর ৩৩০০ গ্রাম কিসমিসের মূল্য ১০০০ টাকা, যা উচ্চবিত্তদের জন্য প্রযোজ্য হবে বলে সভায় জানানো হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার ওলামা পরিষদের সভাপতি ও শহরের মাঝেরঘাট জামে মসজিদের খতীব অধ্যক্ষ মাওলানা শফিউল হক জিহাদী, বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি কক্সবাজার জেলা সভাপতি ও বড় বাজার জামে মসজিদের খতীব মাওলানা কামাল উদ্দীন, বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি কক্সবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক ও ঘাটকুলিয়া পাড়া জামে মসজিদের খতীব মাওলানা মুহাম্মদ আলমগীর, কক্সবাজার ইমাম পরিষদের সহ-সভাপতি ও বায়তুল মোয়াজ্জেম জামে মসজিদের পেশ ইমাম মুফতী মাওলানা নুরুল মোস্তফা, কক্সবাজার ইমাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার লালদীঘি জামে মসজিদের খতীব মাওলানা মুহাম্মদ ইউনুস ফরাজি, কক্সবাজার শহর ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা রফিক বিন সিদ্দীক, কক্সবাজার ওয়াপদা জামে মসজিদ খতীব হাফেজ মাওলানা রিদওয়ানুল কাবীর।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার শহীদ তিতুমীর ইন্সটিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাস্টার শফিকুল হক, খুরুস্কুল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাস্টার আবদুর রহীম, সাবেক ইউপি সদস্য ফয়েজ উল্লাহ, রফিক আহমদ, মাহবুবুল হক, আবুল কালাম আজাদ, মহিউদ্দিন প্রমূখ।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!