পেকুয়ায় ‘কবরস্থান দখলকারি’দের হামলায় আহত জাপা নেতাসহ পরিবারের ৭ সদস্য

পেকুয়ায় ‘কবরস্থান দখলকারি’দের হামলায় আহত জাপা নেতাসহ পরিবারের ৭ সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, পেকুয়া
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের উপকূলীয় উপজেলা পেকুয়ায় হামলায় একই পরিবারের মাদ্রাসা ছাত্র, প্রতিবন্ধীসহ ৭ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে একজন জাতীয় পার্টির গণসংহতির ইউনিয়ন কমিটির সভাপতিও রয়েছেন। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

৩ মে (রোববার) সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের পুরাদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন ওই এলাকার আবদুল হকের ছেলে বাকপ্রতিবন্ধী নাজেম উদ্দিন (৩০), তার ভাই জাতীয় গণসংহতি টৈটং ইউনিয়ন শাখার সভাপতি ছরওয়ার আলম (৪৫), স্ত্রী আয়েশা বেগম (৪০), ছরওয়ারের মা ধনাই বিবি (৭০), গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী তসলিমা আক্তার (৩০), ছরওয়ারের ছেলে ও জালিয়ারচাং মাদ্রাসার ছাত্র মো. আজিজ (১০) ও নাজেম উদ্দিনের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৩০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্র জানান, কবরস্থান জবর দখল নিয়ে স্থানীয় আবদুল হকের ছেলে জাপা নেতা ছরওয়ার আলম ও নুরুল হকের ছেলে আবু তৈয়ব গংদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ৪০ বছর আগে রিজার্ভ সম্পত্তিতে ছরওয়ার আলমের বাবা আবদুল হক গং পুরাদিয়ায় প্রায় ২ একর জায়গার উপর কবরস্থানটি করেছিলেন। সেই সময় থেকে পূর্ব টেটংয়ের পুরাদিয়ায় ওই কবরস্থানটি এলাকাবাসির সামাজিক কবরস্থানে পরিণত হয়। হাজার হাজার মৃত ব্যক্তিকে সেখানে সমাহিত করা হয়।

সুত্র মতে, একই এলাকার নুরুল হকের ছেলে হাফেজ আবু তৈয়ব কবরস্থান অংশের জায়গা জবর দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ করেন। এমনকি কবরস্থান থেকে ২০ শতক জায়গা এক ব্যক্তিকে বিক্রিও করেন। কবরস্থানের উপর হাফেজ আবু তৈয়ব নতুন করে একটি অবৈধ স্থাপনা তৈরি করেন। এ নিয়ে ছরওয়ার গং ও হাফেজ আবু তৈয়ব গংদের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল।

ঘটনার দিন সন্ধ্যায় আবু তৈয়ব, তার ভাই আবুল শামা, আবুল কাসেম, আবু বক্কর, আবু জাফর গং লাঠিসোটা নিয়ে জাপা নেতা ছরওয়ারকে অপহরণ করতে বাড়িতে যান। এ সময় উত্তেজিত লোকজন ছরওয়ারকে কুপিয়ে ও অপর আহতদের পিটিয়ে জখম করে। এ সময় বসতবাড়ি ও সীমানা প্রাচীর গুঁড়িয়ে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী মনজুর মাঝি, জসিম উদ্দিন, মাহাবুবুর রহমান, খাইরুল বশর জানান, কবরস্থান দখল করে ফেলছে মৌলভী আবু তৈয়ব গং। কবর মিশিয়ে তিনি গোরস্থানে ঘর করেছেন। কবরস্থান থেকে গাছ গাছালি কেটে বিক্রি করছেন। কবরস্থানের পূর্ব পাশের ২০ শতক জায়গা একজনকে বিক্রি করে টাকাও নিয়েছেন।

তাদের মতে, অন্যায় আবু তৈয়ব গংদের।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আজম জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!