টেকনাফে গরু আনতে গিয়ে দুই যুবক অপহৃত, উদ্ধার করল এলাকাবাসি

টেকনাফে গরু আনতে গিয়ে দুই যুবক অপহৃত, উদ্ধার করল এলাকাবাসি

সংবাদদাতা, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের লম্বাবিলে পাহাড়ে গরু আনতে গিয়ে দুই যুবককে অপহরণ, পরে এলাকাবাসির সহযোগিতায় উদ্ধার হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।

এলাকাবাসি ও প্রত্যক্ষ্যদর্শীরা জানান, শনিবার (২ এপ্রিল) বিকালে প্রতিদিনের মতো গরু গোয়ালে ফিরিয়ে আনতে যান লম্বাবিলের আবু শামার ছেলে আয়াজ উদ্দিন (২০) ও রুস্তম আলীর ছেলে মোস্তাক আহমদ (২২)। সন্ধ্যা পর্যন্ত গরু খুঁজে না পেয়ে দু’জন মিলে রইক্ষ্যং পাহাড়ের দিকে রওয়ানা দেন। তারা আমতলী এলাকার মরহুম মোস্তাক আহমদ চৌধুরীর বাঁধের পাশে ধানি জমিতে গরু দেখতে পান।

সুত্র মতে, তারা গরু টেনে আনার চেষ্টা করলে আগে থেকেই উৎপেতে থাকা ১০/১২ জনের ডাকাতদল তাদের আটক করে পাশ^বর্তী জঙ্গলে নিয়ে যায়।

এদিকে দীর্ঘ সময় ধরে ওই দুই যুবক ঘরে ফিরে না আসায় তাদের আত্মীয়স্বজন ও লম্বাবিলের শত শত এলাকাবাসি তাদের উদ্ধারে পাহাড়ে যান। ওই সময় ডাকাত দল অবস্থা বেগতিক দেখে গরু ও দুই যুবককে ছেড়ে দিয়ে গা ঢাকা দেয়।

এলাকাবাসি জানান, ডাকাত দলের মধ্যে আলী আকবরের ছেলে আলী হোছন ওরফে লেডু, নজুম উদ্দিনের ছেলে জসিম উদ্দিনকে তারা স্পষ্টভাবে চিনতে পারেন।

একদিকে মিনাবাজারের বেশ কয়েকজন কৃষক রোহিঙ্গা ডাকাতদের হাতে আটকের ঘটনা, অপরদিকে লম্বাবিলের দুই যুবককে অপহরণের চেষ্টা সাধারণ মানুষকে ভাবিয়ে তুলেছে।

এ প্রসঙ্গে লম্বাবিলের শিক্ষাবিদ মঈনুল হোসেন বাবুল ও রমজান আলী সাংবাদিকদের জানান, দেশে এই অবস্থা চলতে থাকলে সাধারণ মানুষের চলাফেরা কঠিন, তারা নিরাপত্তাহীনতায় পড়বেন।

তারা বলেন, এখন কোন মানুষই নিরাপদ নয়।

এ ব্যাপারে স্থানীয় সচেতন মহল জনস্বার্থে আইনি হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলেও মনে করেন।

এ ব্যাপারে হোয়াইক্যং পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (আইসি) মোঃ নাজমুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ প্রসঙ্গে তিনি কিছুই জানেন না। তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!