করোনায় কুকুরদের ভাত-মুরগি রান্না করে খাওয়ালেন জয়া!

করোনায় কুকুরদের ভাত-মুরগি রান্না করে খাওয়ালেন জয়া!

রাস্তায় মানুষের আধ-খাওয়া ছুড়ে ফেলা খাবার খেয়ে জীবন বাঁচে কুকুরগুলোর। কিংবা হোটেলের উচ্ছিষ্ট খাবার যখন ডাস্টবিনে যায় তখন তাদের পেটে খাবার পড়ে। করোনাভাইরাসের প্রকোপে শহর যখন ফাঁকা, রাস্তায় যখন মানুষের ছায়াও পড়ছে না, তখন পথের কুকুরগুলো বাঁচবে কেমন করে!

হ্যাঁ, শহরের এই কুকুরগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছেন একজন। তিনি আর কেউ নন, তিনি হলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। লকডাউনের সময় কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরিয়ে এসে কুকুরগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, গত ২৭ মার্চ থেকে টানা কয়েকদিন নিজ হাতে ভাত ও মুরগির তরকারি রান্না করে রাস্তায় নেমে আসেন জয়া আহসান। মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস পরে ঢাকার দিলুরোড, ইস্কাটন গার্ডেন ও মগবাজার এলাকায় ঘুরে বেড়ানো ২৫-৩০টি কুকুরের মুখে খাবার তুলে দেন তিনি।

সেইসব ছবি এখন ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। জয়ার এমন উদ্যোগে খুশি হয়ে তার প্রশংসা করছেন অনেকেই। জয়া নিজেও কুকুর পোষেণ। তার পোশা কুকুরটির নাম ক্লিওপেট্রা। বোঝায় যাচ্ছে পথের প্রাণীগুলোর প্রতিও তার অগাধ মায়া।

নেটিজেনদের কেউ একজন বলছিলেন, মানুষের মতো চারপাশের প্রাণীগুলোরও বাঁচার অধিকার আছেন। এই পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখে তারাও। জয়ার মতো এমন আরও কিছু মানুষ যদি এগিয়ে আসে তাদের পাশে। তাহলে খাবারের অভাবে এক কুকুরও মরে পড়ে থাকবে না কোথাও।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!