টেকনাফে ৫২ প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে, করোনা রোগী নেই একজনও

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ডা. ইউনুস, ডা. শামশুদ্দিন ও ডা. শাহজাহানের করোনা টেস্ট ‘নেগেটিভ’

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করার জন্য টেকনাফ উপজেলাজুড়ে প্রশাসনিক তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এ পর্যন্ত তালিকাভুক্ত ২২৩ জন বিদেশফেরত প্রবাসীর মধ্যে ৫২ জনের ‘হোম কোয়ারেন্টাইন’ নিশ্চিত করা গেছে।

এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীল। তার মতে, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকাদের মধ্যে ৯ জনের সময় অতিবাহিত হওয়ায় তারা রিলিজ পেয়েছেন।

অন্যদিকে এখনও বিদেশ থেকে এসে কোয়ারেন্টাইনে না আসাদের খুঁজে বের করতে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদসহ প্রশাসনের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরেও প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে, যাতে বিহীত ব্যবস্থা নেয়া যায়।

এদিকে টেকনাফে করোনা আক্রান্ত হলে যাতে প্রয়োজনীয় কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া যায়, সেই লক্ষ্যে ১০ শয্যা বিশিষ্ট আইসোলেশন ওয়ার্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পাশাপাশি আরও ৪টি বেসরকারি প্রাতিষ্ঠানকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সেগুলো হলো টেকনাফ পৌরসভার এলাকার ‘আলো রিসোর্ট’, ‘সী কোরাল’, মিল্কি রিসোর্ট’ ও মেরিন সিটি হাসপাতাল।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীল জানান, টেকনাফে যৌথবাহিনী জনসমাগমরোধে টহল জোরদার করেছে। স্বাস্থ্য বিভাগ ও উপজেলা প্রশাসনও জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারপত্র বিলি ও মাইকিং অব্যাহত রেখেছে। তাছাড়াও বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণে কার্যক্রম জোরদার করেছে।

তিনি বলেন, এখনও করোনা আক্রান্ত কোন রোগী টেকনাফ এলাকায় পাওয়া যায়নি। তারপরও আইসোলেশন বেড, প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সেন্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রশাসনিক এই ধরণের তৎপরতায় স্থানীয়রা দারুণভাবে সাড়া দিয়েছেন। এভাবে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী যদি সবকিছু প্রতিপালন করা যায়, তাহলে স্বল্প সময়ের মধ্যে আমরা ইনশাআল্লাহ মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্ত থাকবো।

তিনি জানান, এসব কার্যক্রম তদারকরির জন্য টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম বেসরকারী ৪টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পর্যবেক্ষণ করেছেন।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, সকলের সার্বিক সহযোগিতায় টেকনাফে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়িত হচ্ছে।

তিনি এ কাজে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!