নগ্ন হয়ে দৌড় দিল কোয়ারেন্টাইনে থাকা যুবক, বৃদ্ধাকে কামড়ে হত্যা!

টেকনাফে ভারতফেরত এক রোহিঙ্গা পরিবারের চারজন ‘কোয়ারেন্টিনে’

ভারতের তামিলনাড়ুতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক যুবক বাড়ি থেকে নগ্ন হয়ে পালিয়ে এক বৃদ্ধাকে কামড়ে মেরে ফেলেছেন। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কা থেকে দেশে ফেরার পর ওই যুবককে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছিল স্থানীয় প্রশাসন।

এনডিটিভি বলছে, করোনাভাইরাস মহামারির তীব্র আশঙ্কার মাঝে শ্রীলঙ্কা থেকে তামিলনাড়ুতে ফেরার পর ৩৫ বছর বয়সী ওই যুবককে হোম কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। শুক্রবার ওই যুবক বাড়ি থেকে নগ্ন অবস্থায় দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। কিছুদূর গিয়ে ৮০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার ঘাড়ে কামড় বসিয়ে দেন।

পরে স্থানীয়রা ওই নারীকে উদ্ধার করে তামিলনাড়ুর একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন ওই বৃদ্ধার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে রোববার মারা যান।

পুলিশের স্থানীয় এক কর্মকর্তা বলেছেন, অভিযুক্ত মানিকান্দনের মানসিক সমস্যা রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তিনি ২০১০ সালে মাদুরাইয়ের হাসপাতালে মানসিক সমস্যার চিকিৎসা নিয়েছিলেন।

পুলিশের ওই কর্মকর্তা বলেন, মানিকান্দন বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। কিন্তু ওইদিন বাড়ি থেকে নগ্ন অবস্থায় দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। বাড়ি থেকে কয়েকশ মিটার যাওয়ার পর এক বৃদ্ধাকে পান। পরে ওই বৃদ্ধার ঘাড়ে কামড় বসিয়ে দেন। ওই বৃদ্ধা নিজের বাড়ির সামনে বসে ছিলেন।

তিনি বলেন, ওই যুবকের পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, শ্রীলঙ্কা থেকে ফেরার পর ব্যবসায়িক ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় ছিলেন মানিকান্দন। যে কারণে তারা মানসিক অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ ওই যুবকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!