রামুতে নতুন নির্দেশনা, সব দোকান বন্ধ থাকবে দিনরাত

রামুতে নতুন নির্দেশনা, সব দোকান বন্ধ থাকবে দিনরাত

মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক, রামু
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

রামুতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ দোকান ছাড়া পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পযন্ত সব দোকান বন্ধ থাকবে। রামু উপজেলা প্রশাসন নতুন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা জানান, বুধবার (২৫ মার্চ) থেকে রামু উপজেলার প্রশাসনের সাথে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের টহল কার্যক্রম শুরু করেছে। আজ থেকে রামু উপজেলায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ফার্মেসী,মুদির দোকান,কাঁচা বাজার,সুপারসপ ছাড়া বাকি সব দোকান বন্ধ থাকবে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পযর্ন্ত।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের সচেতন থাকতে হবে। রামু উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ যে দোকানগুলো খোলা থাকে সে দোকান গুলোতে মূল্য তালিকা প্রদর্শনের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। অন্যথায় কঠোর অর্থদন্ড করা হবে। পাশাপাশি করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত নির্দেশনামূলক কাজ করতে হবে। আইন অমান্যকারিদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে এবং চলবে ।

তার মতে, সদ্য দেশে আসা প্রবাসিদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের হার দিন দিন বাড়ছে। এ থেকে বাঁচতে জনসাধারণকে বেশী বেশী সচেতন হতে হবে। ইতোমধ্যে সরকারীভাবে দেয়া সকল নির্দেশনা সঠিকভাবে পালনের মাধ্যমে করোনা থেকে বাঁচতে সকলকে ভূমিকা রাখতে হবে।

এরইমধ্যে সরকারের পক্ষে জেলা প্রশাসন জনস্বার্থে সব ধরণের গরু ও পশুর হাট বন্ধ, সভা-সেমিনার, যে কোন ধরণের জনসমাগম হতে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগণকে সচেতন করতে ও নিরাপদে রাখতে রামুতে নেমেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা, নতুন সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দীন, রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের, পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা ও সাংবাদিক, প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!