টমটমে ৪ জনের বেশি যাত্রী নয়, বেশি তুললেই জরিমানা

টমটমে ৪ জনের বেশি যাত্রী নয়, বেশি তুললেই জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে কক্সবাজার জেলা ট্রাফিক পুলিশ মাইকিং করে সচেতনতা কার্যক্রম শুরু করেছে। ট্রাফিক পুুলিশের প্রচারণার মূল শ্লোগান হলো, এক টমটমে চারজনের বেশি যাত্রী তোলা যাবে না। বেশি যাত্রী তুললেই জরিমানা করা হবে। এজন্য মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক পুলিশের চেকপোষ্টও বসানো হয়েছে।

রোববার থেকে জেলা ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে এই ধরণের মাইকিং শুরু করা হয়েছে। কক্সবাজার শহরের প্রধান প্রধান সড়কে টমটমচালক এবং যাত্রীদের সচেতন ও সতর্ক করতে মাইকিং করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) বাবুল চন্দ্র বণিক।

সুত্র মতে, কক্সবাজার শহরের চলাচলের প্রধান বাহন হয়ে উঠেছে টমটম। কয়েক শতাধিক টমটম একই সময়ে শহরের বিভিন্ন সড়কে চলাচল করে। এসব টমটমে প্রতিদিন গাদাগাদি করে গন্তব্যে ছুটেন সাধারণ মানুষ।

সাধারণ যাত্রীদের মতে, এসব টমটমে গাদাগাদি ও ঠাসাঠাসি করে আট থেকে নয়জন যাত্রী তোলা হয়। একজন যাত্রীর নিশ্বাস আরেকজনের শরীরে লাগে। এই পরিস্থিতিতে যদি কোনোভাবে করোনাভাইরাস বহনকারি কেউ টমটমের যাত্রী হন, তাহলে দ্রুত অন্যদের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি থাকে। তাই প্রতিটি টমটমে যাত্রীর সংখ্যা কমানোর উদ্যোগ ভালো ফল দেবে।

ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার বাবুল চন্দ্র বণিক সংবাদমাধ্যমকে জানান, টমটমচালক এবং যাত্রীদের সচেতন করতে ট্রাফিক পুলিশ কাজ করছে। মোড়ে মোড়ে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট।

তিনি বলেন, কোন অবস্থাতেই চালকের পাশে যাত্রী তোলা যাবে না। এখন প্রাথামিকভাবে সতর্ক করা হচ্ছে। কেউ নির্দেশনা না মানলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!