টেকনাফে ভারতফেরত এক রোহিঙ্গা পরিবারের চারজন ‘কোয়ারেন্টিনে’

টেকনাফে ভারতফেরত এক রোহিঙ্গা পরিবারের চারজন ‘কোয়ারেন্টিনে’

নুরুল হক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অবৈধভাবে বিদেশফেরত এক রোহিঙ্গা পরিবারের চারজনকে কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ মার্চ) দুপুরে টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা শিবির থেকে দুই শিশুসহ চারজনের পরিবারটিকে কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়। এই পরিবারটি লেদা জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) হাসপাতালে রয়েছে।

পরিবারটির সদস্যরা হলেন মো. ছাদেক (২৫), সাদেকের স্ত্রী হোসনে আরা (২৩), ছেলে পারভেজ (৩) ও মেয়ে সাজেদা (১০ মাস)।

স্থানীয় রোহিঙ্গা নেতারা জানিয়েছেন, সোমবার ভোরে খুলনা হয়ে সড়কপথে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২৪ এর ‘ই’ ব্লকে মোস্তাক আহম্মদ নামক এক ব্যক্তির বাসায় আসে ছাদেকের পরিবারটি। বেলা ১২টার দিকে তাদের আসার খবর জানাজানি হলে পরিবারটিকে ক্যাম্প ইনচার্জ (সিআইসি) অফিসে নিয়ে আসা হয়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধি, টেকনাফ নয়াপাড়া ও লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ (সিআইসি) আব্দুল হান্নান বলেন, গত রোববার রাতে ভারতের হায়দারাবাদ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে এই পরিবারটি। ইতোমধ্যে তাদের ইউএনএইচসিআর ও আইওএমের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা শিবিরের চেয়ারম্যান মো. আলমও ভারত থেকে আসা পরিবারটির কোয়ারেন্টিনে রাখার খবর নিশ্চিত করেন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, রোহিঙ্গাদের অবৈধ যাতায়াত টেকনাফকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলছে।

রোহিঙ্গা পরিবারের চার সদস্যকে কোয়ারেন্টিনে নেয়ার সত্যতা তিনিও নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বিদেশফেরতদের তালিকায় অনেককে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। জানিনা এরা রোহিঙ্গা কিনা। ফলে উদ্বেগ বাড়ছে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!