করোনা আতঙ্ক : বদলে গেল মসজিদের আজান!

করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত দুই সপ্তাহের (১২-২৬ মার্চ) ছুটি ঘোষণা করেছে। বৃহস্পতিবার থেকে এ ছুটি কার্যকর করা হয়েছে। এ দিকে দেশটির ধর্ম মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে যে, মসজিদে শুধু আজান হবে আর বাসায় নামাজ পড়বে মুসল্লিরা।

এ ঘোষণার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আজানের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, তাতে শোনা যায়- আজানে ‘হাইয়া আলাস সালাহ’ (নামাজে আসো) এর স্থলে মুয়াজ্জিন বলছেন- ‘আল-সালাতু ফি বুয়ুতিকুম’। অর্থাৎ ‘আপনারা বাড়িতে নামাজ পড়ুন।’

মুয়াজ্জিন আজানে মধ্যে ‘আস-সালাতু ফি বুয়ুতিকুম’ এ অপরিচিত বাক্য বলার পর যথারীতি ‘আল্লাহ আকবর-আল্লাহ আকবর’ এবং ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু’ বলে আজান শেষ করছেন।

তুরস্কভিত্তিক আনাদুলো এজেন্সি সূত্রে জানা যায়, নামাজ পড়তে মসজিদগুলোতে না আসতে অপরিচিত এ শব্দটি প্রচার করা হচ্ছে।

কোনো কোনো মসজিদে আজানের শুরু বা শেষে বিষয়টি বলে দেয়া হচ্ছে। আবার অনেক মসজিদে ‘হাইয়া আলাস সালাহ’র পরিবর্তে ‘আল-সালাতু ফি বুয়ুতিকুম’ কথাটি বলা হচ্ছে।

কুয়েতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশটির মন্ত্রিপরিষদের নেয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পাবলিক ও প্রাইভেট সেক্টরে ১২-২৬ মার্চ পর্যন্ত ছুটি থাকবে। আর ব্যাংকগুলো বন্ধ থাকবে ১২-২৯ মার্চ পর্যন্ত। তবে এটিএমবুথগুলো উন্মুক্ত থাকবে।

উল্লেখ্য যে, ফ্রান্স সবার জন্য মুখোশ পরাকে বাধ্যতামূলক করতে ১৫০ ইউরো জরিমানার আইন জারি করেছে। অথচ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার আগে ফ্রান্সে ওড়না বা মুখোশ পরা ছিল নিষিদ্ধ।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!