২০৩৫ সালের মধ্যেই উন্নত রাষ্ট্র হচ্ছে বাংলাদেশ, মনে করছেন এমপি কমল

২০৩৫ সালের মধ্যেই উন্নত রাষ্ট্র হচ্ছে বাংলাদেশ, মনে করছেন এমপি কমল

আনছার হোসেন
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য এবং তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, ২০৪২ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না, আগামি ২০৩৫ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে।

তিনি বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, তবে শহরের মানুষের চেয়ে পিছিয়ে পড়ছে গ্রামের মানুষ। এখন যারা কর্মজীবী, আগামি ২০ বছর পর তাদের কোন কর্ম থাকবে না। এই অদক্ষ মানুষের মানুষগুলো বেকার বসে থাকবে।

কমল মনে করেন, গ্রামের অদক্ষ এই মানুষগুলোকে এখন থেকেই দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত করা না গেলে আগামি দিনে দেশ হয়তো ধনী হবে, কিন্তু মানুষ গরীব থেকে যাবে।

তিনি রোববার (১৫ মার্চ) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে ‘তথ্যপ্রযুক্তির নিরাপদ ব্যবহার’ বিষয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আবু তাহেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো. শাহজাহান আলী ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন।

চট্টগ্রাম জেলা তথ্য অফিস আয়োজিত এই মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক সৈকত সম্পাদক মাহবুবর রহমান ও চট্টগ্রাম জেলা তথ্য অফিসের উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুক দেওয়ান।

বিশেষ অতিথি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট (এডিএম) মো. শাহজাহান আলী বলেন, নৈতিক ভাবে কাজ করতে পারলে আইন লাগে না। নিজের অপরাধ যদি নিজে বুঝতে পারি, তখন নিজে নিজেকেই ক্ষমা করতে পারলেই হয়ে যায়। কিন্তু সেটা হয় না বলেই আইনের প্রয়োজন হয়।

তিনি বলেন, প্রযুক্তির কারণে দেশ এখন ছোট হয়ে এসেছে। তারচেয়েও ছোট হয়ে এসেছে গণমাধ্যম।

তিনি করোনা ভাইরাসের নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, আল্লাহর কাছে দোয়া করা ছাড়া আর কোন সুযোগ আমাদের সামনে নেই।

আরেক বিশেষ অতিথি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন বলেন, ডাক্তার যখন ভুল করেন, তখন রোগী মারা যায়। পুলিশ যখন ভুল করবে তখন দাঙ্গা লেগে যাবে। যদি তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহার হলে আমাদের সবকিছুই হারিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, আমরা এখন ৫০ পার্সেন্ট ট্রায়াল ও অ্যাররের মধ্যে পড়ে গেছি। এখন কোন কিছু ক্রসচেক করতে গেলে দুইজনকে দিয়ে বিশ^াস করা যায় না, অন্তত ১০ জনের কাছে তথ্য চেক করতে হয়।

তার মতে, এখন আমরা এক অনিশ্চয়তার পৃথিবীতে বাস করছি।

মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম জেলা তথ্য অফিসের উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুক দেওয়ান তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার নিয়ে মূল বক্তব্য তুলে ধরেন। তিনি সাংবাদিকদের ফেসবুক, ইনস্টাগাম, হোয়াটসআপ, ভাইবার, ইমু, অনলাইন নিউজ ও অনলাইন টিভির ব্যবহার নিয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!