সম্মেলন ও কাউন্সিল বর্জনের ঘোষণা দিল দক্ষিণ মিঠাছড়ি আ.লীগ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

রামু উপজেলার আওতাধীন দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রোববারের সম্মেলন ও কাউন্সিল বর্জন করছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত ও ত্যাগী নেতাকর্মীরা।

সূত্রমতে, কাউন্সিলর তালিকায় ভিন্নমত ও দলের অনুসারীদের তালিকাভুক্তকরণ এবং স্বজনপ্রীতি ও অনিয়মের কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

১৪ মার্চ (শনিবার) সন্ধ্যার দিকে দক্ষিণ মিঠাছড়ি চেইন্দা এলাকায় অনুষ্ঠিতব্য আওয়ামী লীগের কাউন্সিল ও সম্মেলন বর্জন করছেন স্থানীয় তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। ওই সম্মেলন ও কাউন্সিল বর্জনের ঘোষণা দিয়ে তারা একটি বিবৃতি দিয়েছেন।

ওই বিবৃতিতে তারা বলেন, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক রশিদ আহমদ, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শামসুল আলম, অত্র ইউনিয়নের আহবায়ক কমিটির সদস্য আহম্মদ হোছন ও ছৈয়দ আলম, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আবু, ২নং ওয়ার্ডের সভাপতি আবু ছৈয়ত, ৪নং ওয়ার্ডের সভাপতি মনির আহম্মদ, ৫নং ওয়ার্ডের সভাপতি রাজা মিয়া, ৬নং ওয়ার্ডের সভাপতি মো. খলিল, ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি মো. ইউসুফ, ৯নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক, ১নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি আজিজুল হক, ৯নং ওয়ার্ডের সহ সভাপতি আব্দুল জব্বার, ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল মুফিজুর রহমান, ৯নং ওয়ার্ডে সভাপতি প্রার্থী মকছুদুর রহমান, ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল ফয়েজ আহম্মদ, ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল আবু বক্কর ও ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য ফরিদুল আলম প্রমূখ।

বিবৃতিতে তারা বলেছেন, যে মনগড়া সম্মেলন ও কাউন্সিল করার কথা রয়েছে তা দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নে নয়, তা করা হচ্ছে রামু সপ্নপুরী ক্লাবে। যে কাউন্সিলর তালিকা দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন করা হয়েছে। অনেক নেতাকর্মীকে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। তাদের পরিবর্তে অন্য দলের নেতাকর্মী দিয়ে অর্থাৎ বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মী নিয়ে কাউন্সিলর তালিকা পূর্ণ করেছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন ইউনিয়নের প্রকৃত আওয়ামী লীগেরা।

তাদের মতে, যে সম্মেলন ও কাউন্সিলর হতে যাচ্ছে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের কাউন্সিল বানিয়ে করা হচ্ছে বলে বেশ কয়েকবার সংবাদও প্রচার করা হয়েছে।

বিবৃতি আরও বলা হয়েছে, যারা খেয়ে না খেয়ে বছরের পর বছর ধরে তাদের প্রাণের সংগঠন আওয়ামী লীগ করে যাচ্ছেন। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্তরা তাদের কাউন্সিলর তালিকা থেকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে বাদ দিয়েছেন। এতে ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের মধ্যে দ্বিধাবিভক্তি চরম আকার ধারণ করেছে।

তারা বলেন, রাজনীতির সাথে জড়িত নয় এমন ব্যক্তিবর্গকেও অদৃশ্য কারণে কাউন্সিলর করা হয়েছে। যার কারণে তারা বাধ্য হয়ে আজকের সম্মেলন ও কাউন্সিল পুরোপুরি বর্জন করছেন।

তারা আরও বলেন, খুব শীঘ্রই তারা পাল্টা কমিটি ঘোষণা করবেন। অনুপ্রবেশকারী ও ভিন্নমতের অনুসারীদের যে কোনো উপায়ে প্রতিহত করবেন।

তাদের ভাষ্য মতে, আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনসারী।

এদিকে দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ ভুট্টো ছাত্রলীগ থেকেই নৌকার পক্ষে অক্লান্ত পরিশ্রমে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানেও তিনি ওেই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক হিসেবে রয়েছেন। কিন্তু তাকে পর্যন্ত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিল প্রার্থী করা হয়নি। তাই বিবৃতিতে ওই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীরা তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!