করোনার বিস্তার ঠেকাতে সিঙ্গাপুরের সব মসজিদ বন্ধ!

করোনার বিস্তার ঠেকাতে সিঙ্গাপুরের সব মসজিদ বন্ধ!

করোনাভাইরাসের বিস্তারের লাগাম টানতে দেশের সব মসজিদ বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর। শুক্রবার (১৩ মার্চ) থেকে আগামী পাঁচদিন দেশটির ৭০টি মসজিদের সবগুলোই বন্ধ থাকবে। এমনকি শুক্রবার জামায়াতে জুমার নামাজও অনুষ্ঠিত হবে না।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার সেলানগরে ধর্মীয় একটি গণজমায়েতে অংশ নেয়ার পর সিঙ্গাপুরের দুই নাগরিক করোনা সংক্রমিত হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে দেশটির সরকার। গত ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে সিঙ্গাপুরের অন্তত ৯০ জন নাগরিক ওই ধর্মীয় সমাবেশে অংশ নেন। তাদের মধ্যে অনেকেই স্থানীয় কিছু মসজিদে সমবেত হতেন।

সিঙ্গাপুরের ইসলামিক রিলিজিয়াস কাউন্সিল অব সিঙ্গাপুর বলছে, ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে কয়েকদিনের জন্য সাময়িকভাবে দেশের সব মসজিদ বন্ধ থাকবে।পাঁচদিন ধরে বন্ধ থাকা সব মসজিদে পরিষ্কার অভিযান পরিচালনা করা হবে।

পরিষ্কার করার জন্য ইতোমধ্যে পাঁচটি মসজিদ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে এই ধর্মীয় কাউন্সিল। বৃহস্পতিবার দেশটির মুসলিম কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রী ম্যাসাগোস জুলকিফলি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, দেশে ফেরত আসার পর এক ব্যক্তির শরীরে করোনার উপস্থিতি ধরা পড়েছে। ওই ব্যক্তির যাতায়াত আছে এমন চারটি মসজিদ শনাক্ত করা হয়েছে।

মুসলিম সম্প্রদায়ের সুরক্ষার জন্যই সব মসজিদ বন্ধের অস্থায়ী এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। দেশটির পরিবেশ ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বও পালন করছেন মুসলিম কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রী ম্যাসাগোস জুলকিফলি।

তিনি বলেন, মসজিদে প্রার্থনায় অংশ নেয়া বৃদ্ধরা বিশেষ ঝুঁকিতে আছেন। আমাদের নিজেদের, সম্প্রদায় এবং প্রিয়জনদের রক্ষা করা দরকার। এখন পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে, তাতে কোভিড-১৯ এ সংক্রমণের বেশি ঝুঁকিতে আছেন জ্যেষ্ঠ এবং বয়স্করা।

ইসলামিক রিলিজিয়াস কাউন্সিল অব সিঙ্গাপুর বলছে, মসজিদের সব ধরনের কার্যক্রম যেমন, বয়ান, ধর্মীয় শিক্ষার ক্লাস আগামী ২৭ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে আগামী ১৬ মার্চ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর খুলে দেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে এই ভাইরাসে উপস্থিতি ধরা পড়ে। চীনে ৩ হাজার ১৬৯ জনের প্রাণ কেড়ে নেয়া এই ভাইরাস এখন বিশ্বের শতাধিক দেশে ছড়িয়েছে। বিশ্বজুড়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ২৬ হাজার ৮২ জন এবং মারা গেছেন চার হাজার ৭০১ জন।
সূত্র : রয়টার্স, স্ট্রেইট টাইমস।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!