মিয়ানমারের আটক ৪৭ নাগরিককে কারাগারে পাঠালেন আদালত

মিয়ানমারের আটক ৪৭ নাগরিককে কারাগারে পাঠালেন আদালত

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

সেন্টমার্টিনের বঙ্গোপসাগরের ছেঁড়াদ্বীপ এলাকা থেকে সাতটি নৌযানসহ আটক ৪৭ মিয়ানমার নাগরিকের বিরুদ্ধে মামলা করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড। এসব নৌযানের মধ্যে একটি কার্গো ও ৬টি কাঠের ট্রলার রয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে চোরাচালান ও অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক মিয়ানমার নাগরিকদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করে কক্সবাজার কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত সোমবার দুপুরে বৈধ কোন কাগজপত্র না থাকায় সেন্টমার্টিনে ট্রলারসহ তাদের আটক করা হয়েছিল।

ট্রলারসহ আটক মিয়ানমার নাগরিকদের থানায় সোর্পদ করা হয়েছে, উল্লেখ করে কোস্টগার্ড টেকনাফ ষ্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাহাত ইমতিয়াজ বলেন, ‘গত সোমবার সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপ বঙ্গোপসাগরে কোস্টগার্ডের একটি টহলদল অভিযান পরিচালনা করে মিয়ানমারের ৪৭ নাগরিকসহ ৭টি নৌযান আটক করে। এসব ট্রলারে ১৮টি গরু ও বিপুল পরিমাণ সেগুন ও গর্জন কাঠ রয়েছে, যেগুলো মিয়ানমার থেকে টেকনাফ বন্দর ও করিডোরে আসছিল। তবে বৈধ কোন কাগজপত্র না থাকায় গরু ও কাঠ ভর্তি ট্রলারসহ তাদের আটক করা হয়।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, চোরাচালান ও অনুপ্রবেশের দায়ে ৪৭ মিয়ানমার নাগরিকের বিরুদ্ধে দুইটি মামলা হয়েছে। আটক মিয়ানমার নাগরিকদের কক্সবাজার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তবে এই মামলাগুলো গুরুত্ব সহকারে তদন্ত চলছে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!