নিখোঁজের ৩ দিন পর নদীর পাড়ে মিললো রোহিঙ্গা যুবকের লাশ

স্ত্রী অন্যত্র বিয়ে করায় স্বামীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের নাফনদীর কিনারা থেকে ভাসমান অবস্থায় অর্ধগলিত এক রোহিঙ্গা যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তথ্য সুত্র মতে, পহেলা মার্চ (রোববার) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টেকনাফ স্থলবন্দর সংলগ্ন কেরুনতলী নাফনদীর কিনারায় কেওড়া বাগানের মধ্যে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা টেকনাফ থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

ইতোপূর্বে নাফনদীতে পড়ে থাকা লাশের খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়ার পর লাশটির পরিচয় সনাক্ত করে তার স্বজনরা। তিনি হ্নীলা ইউনিয়ন ৯নং ওয়ার্ড জাদীমুড়া রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের ২৭ নম্বর ক্যাম্পে বসবাসরত আজিজুর রহমানের ছেলে সুলতান আহমদ (২৪)।

রোহিঙ্গা যুবকের ভাসমান লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ। তিনি জানান, নাফনদীতে একটি লাশ ভাসছে এমন খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌছে লাশটি উদ্ধার করেছে। মৃতদেহটি ময়না তদন্ত করতে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ওসি বলেন, কি কারণে ওেই যুবক মারা গেছে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে তার আসল রহস্য বের করা হবে।

এদিকে নিহত রোহিঙ্গা যুবকের পরিবারের কাছ থেকে খবর নিয়ে জানা যায়,গত ২৬ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) সকালে একটি ঠেলাজাল নিয়ে তিনি নাফনদীতে মাছ ধরার জন্য ঘর থেকে বের হয়েছিলেন। তারপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিল।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!