বাংলাদেশ সমুদ্রসীমায় ঢুকে ধরা খেলো মিয়ানমারের ১৬ মাঝি-মাল্লা

বাংলাদেশ সমুদ্রসীমায় ঢুকে ধরা খেলো মিয়ানমারের ১৬ মাঝি-মাল্লা

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

বাংলাদেশী সমুদ্রসীমায় ঢুকে অবৈধ ভাব মাছ ধরার সময় দু’টি ট্রলারসহ মিয়ানমারের ১৬ মাঝি-মাল্লাকে (জেলে) আটক করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদস্যরা।

শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) সকালে সেন্টমাটিন দ্বীপের অদূরে ৫৬ নটিক্যাল মাইল বাংলাদেশ সমুদ্রসীমানার ভেতর থেকে তাদের আটক করা হয়।

কোস্টগার্ডের সেন্টমাটিন স্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট সাদ মোহাম্মদ তাইম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় অনুপ্রবেশ করায় সেখান থেকে দু’টি মাছধরার ট্রলারসহ মিয়ানমারের ১৬ জেলেকে আটক করা হয়েছে। বিকেলে আটকদের সেন্টমাটিন থেকে টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

লেফট্যানেন্ট সাদ মোহাম্মদ তাইম জানান, আটককৃত পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন আরাকানের চান্দামার এলাকার ফজল আহমেদের ছেলে মো. কাশেম (৩৫), আবদুল হাইয়ের ছেলে নুর হাসিম (১৯), ফিরোজ হোসেনের ছেলে মো. জলিল (২২), আবু ফজলের ছেলে আবু শহীদ (১৯), আবদু রহিমের ছেলে নবী হোসেন (২০), আহমদ হোসেনের ছেলে হাবিবুর রহমান (৪১), মো. ইউসুফের ছেলে মো. হোসেন (২০), মো. তৈয়বের ছেলে মো. রবি (২০) ও আবুল কাশেমের ছেলে মো. রফিক (২৫)। তাদের একই এলাকার সাদেক হোসেনের মালিকানাধীন বোট থেকে আটক করা হয়। এরা সকলেই রোহিঙ্গা মুসলিম।

এছাড়াও একই এলাকার সলিম উল্লাহর মালিকানাধীন বোট থেকে মো. নাসিরের ছেলে রফিক মাঝি (৩০), আবদু সালামের ছেলে মো. ধলা (১৭), আবুল কাশেমের ছেলে মুহা. শাকের (২৭), মুহাম্মদ ইসার ছেলে ইসা আলম (২০), আহমদ হাবেদ (১৩) ও নাসিরের ছেলে কছিরকে (২০) আটক করা হয়। এরাও সবাই রোহিঙ্গা মুসলিম।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুল হাসান খান বলেন, বাংলাদেশের সমুদ্র সীমায় অনুপ্রবেশের দায়ে কোস্টগার্ড মিয়ানমারের ১৬ জেলেকে আটক করেছে বলে শুনেছি। কিন্তু সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত তাদের থানায় সোপর্দ করা হয়নি।