বেপরোয়া ডাম্পার কেড়ে নিলো স্কুলছাত্র ও বৃদ্ধের প্রাণ, বিক্ষুব্ধ জনতা আগুন দিলো গাড়িতে

কক্সবাজার শহরের কাছাকাছি ইউনিয়ন ঝিলংজার বাংলাবাজার এলাকায় ডাম্পারের চাকায় পিষ্ট হয়ে স্কুলছাত্রসহ দুইজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) বিকাল ৪টার দিকে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বাংলাবাজারের ‘বাগ্গুলার দোকান’ এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ওই এলাকার আবুল বশর (৮৫) ও ঝিলংজা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফরহাদ (১৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একটি বিয়ের বরযাত্রী হিসেবে রওনা দেয়ার জন্য রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন তারা। ওই সময় সড়কের পূর্বদিক দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা লিংকরোডগামী ওই ডাম্পারটি ফজলিয়া মাদ্রাসার সামনে আসলে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা বরযাত্রীদের উপরে উঠিয়ে দেয়।

ওই সময় ঘটনাস্থলেই আবুল বশর (৮৫) নামের এক বৃদ্ধ মারা যান। ঘটনার ৩০ মিনিট পর ক্রেন দিয়ে ওই ডাম্পার তুলে স্কুল ছাত্র ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা ওই সময় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে ফাহাদ মারা যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ওই এলাকার ইউপি সদস্য নাছির উদ্দীন।

এদিকে বেপরোয়া গতির ডাম্পারটি ড্রাইভার ছাড়া হেলপার দিয়ে চালানোর খবরে বিক্ষুব্ধ জনতা ওই ডাম্পারে আগুন জ্বালিয়ে দেয়।

স্থানীয় সূত্র মতে, ওই ডাম্পারের মালিক বহুল আলোচিত ও সমালোচিত আওয়ামী মটর চালক লীগের নেতা দরগাহ পাড়া এলাকার দিদার।