আকাশে হার্ট অ্যাটাক, জরুরি অবতরণের সময় পাইলটের মৃত্যু

স্বামীর লাশ এয়ারপোর্টে রেখে বিমানে উঠলেন স্ত্রী

বিমান তখন ৩৩ হাজার ফুট উপরে। হঠাৎ করে অসুস্থ বোধ করলেন কো-পাইলট। মুহূর্তের মধ্যে অসুস্থতা চরমে পৌঁছাল। বিমানে থাকা অন্যান্য ক্রুরা বুঝতে পারলেন ৪৯ বছর বয়সী পাইলট হার্ট অ্যাটাক করেছেন। তৎক্ষণাৎ জরুরি অবতরণ করানো হয় বিমানটিকে। কিন্তু ততক্ষণে মারা গেছেন সেই পাইলট। গত রোববার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে রাশিয়ায়।

রুশ বার্তা সংস্থা টিএসএস এ তথ্য জানিয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, বিমানটি রাশিয়ার রোসতভ-অন-ডন শহরের প্লাটোভ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছাকাছি আসার পর পাইলটের হার্ট অ্যাটাক হয়। এ সময় বিমানে থাকা প্যারামেডিকসদের চেষ্টা সত্ত্বেও অবতরণের সময়ই তিনি মারা যান। তাৎক্ষণিকভাবে ওই পাইলটের নাম জানা যায়নি।

ফক্সনিউজের খবরে বলা হয়েছে, রোববার সকাল ৮টা ২০ মিনিটে ফ্লাইট এসইউ১৫৪৬ মস্কোর শেরেমেতিয়েভো বিমানবন্দর ছেড়েছিল। ওইদিন সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে বিমানটির অনাপার ব্লাক সি রিসোর্টে অবতরণের কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে ফ্লাইটটি রোসতভ বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে।

একজন নারী যাত্রী স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, হঠাৎ একজন বিমানবালা যাত্রীদের কাছে এসে জানতে চান তাদের মধ্যে কোনো ডাক্তার আছেন কিনা। এর কয়েক মিনিট পরেই ঘোষণা করা হয় বিমানটি জরুরি অবতরণ করছে।

রুশ এয়ারলাইন্স এরোফ্লোটের একজন মুখপাত্র জানিয়েছে, অ্যাম্বুলেন্সে তোলার পর পাইলট মারা যান। তার মৃত্যুতে এয়ারলাইন্সের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে।

ককপিটে পাইলটের অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা এটাই নতুন নয়। মাঝে মাঝেই এমনটি ঘটে থাকে। এজন্য একজন সহযোগী পাইলট থাকেন জরুরি পরিস্থিতিতে বিমান চালানোর দায়িত্ব নেওয়ার জন্য।