পেকুয়ায় প্রেমিকাকে অপহরণ করে ধর্ষণ, পরে খুন করলো প্রেমিক ফারুক

পেকুয়ায় প্রেমিকাকে অপহরণ করে ধর্ষণ, পরে খুন করলো প্রেমিক ফারুক

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের উপকূলীয় উপজেলা পেকুয়ায় বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রেমিকের হাতে ধর্ষণের পর খুন হয়েছেন প্রেমিকা। এই ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রেমিক ও ধর্ষক ওমর ফারুকের দুই চাচীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।

নিহত প্রেমিকা ও মাদ্রাসা ছাত্রী আয়েশা বেগমের বাবা বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে চকরিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় প্রেমিক ওমর ফারুকসহ ৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এ নিয়ে স্থানীয় লোকজনের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, মাদ্রাসা ছাত্রী আয়েশা বেগমের সাথে স্থানীয় ওমর ফারুক নামের এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে প্রেমিকাকে অপহরণ করে ধর্ষণের পর হত্যা করে বস্তাবন্দি করে লাশ রাস্তার পাশে ফেলে দেয়। শুক্রবার সকালে বাড়ির অদূরে মাদ্রাসা ছাত্রী আয়েশা বেগমের বস্তাবন্দি লাশ দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠায়।

ওইদিন বিকালে ময়নাতদন্ত শেষে আয়েশা বেগমের মরদেহ সামাজিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান বলেন, শুক্রবার রাতে ছাত্রীর বাবা জামাল হোসেন বাদী হয়ে প্রেমিক ওমর ফারুককে প্রধান আসামি করে ৪ জনের নাম উল্লেখপূর্বক একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।