টেকনাফ স্থল বন্দর

মিয়ানমারের পেঁয়াজ আসলো ২০৮৪৩ টন, অক্টোবরে রাজস্ব আদায় ১০ কোটি ৮২ লাখ টাকা

মিয়ানমারের পেঁয়াজ আসলো ২০৮৪৩ টন, অক্টোবরে রাজস্ব আদায় ১০ কোটি ৮২ লাখ টাকা

নুরুল হক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে স্থল বন্দরে গত অক্টোবর মাসে ১০ কোটি ৮২ লাখ টাকার রাজস্ব আদায় হয়েছে। এই মাসে দেশের সংকট মোকাবেলায় পেয়াঁজের আমদানি বৃদ্ধির কারণে অন্যান্য পন্য কম আমদানি হওয়ায় রাজস্ব আদায় তেমন হয়নি বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। তবে এখনো এই ষ্টেশনে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) কর্তৃক মাসিক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়নি বলে জানা গেছে।

স্থল বন্দরের শুল্ক বিভাগ সুত্রে জানায়, ২০১৯-২০ অর্থবছরের অক্টোবর মাসে ৫০২টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ১০ কোটি ২৮ লাখ ৪৪ হাজার টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে। এ মাসে মিয়ানমার থেকে পন্য আমদানি হয়েছে ১২৭ কোটি ৯৩ লাখ ২৬ হাজার টাকার। এই মাসে বিশেষ করে ২০ হাজার ৮৪৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়।

অপরদিকে ৬৫টি বিল অব এক্সপোর্টের মাধ্যমে ২ কোটি ১২ লাখ ৩৪ হাজার টাকার পণ্য মিয়ানমারে রপ্তানি করা হয়েছে।

এছাড়াও শাহপরীরদ্বীপ করিডোরে মিয়ানমার থেকে ৩৯০১টি গরু, ৩১৫৩টি মহিষ ও ১২টি ছাগল আমদানি করে ৩৫ লাখ ২৯ হাজার ৪ শত টাকা রাজস্ব আদায় হয়।

স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, সীমান্ত বাণিজ্য ব্যবসায় সুষ্টু পরিবেশ বিরাজ করছে না। ব্যবসায়ীদের নানা সমস্যা পোহাতে হচ্ছে। এখনো বন্দরে পর্যাপ্ত শ্রমিক ও অবকাঠামোর অভাব রয়েছে। সীমান্ত বাণিজ্যকে গতিশীল করতে দু’দেশের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে ব্যবস্থার দাবি করেছেন তারা।

টেকনাফ স্থলবন্দর শুল্ক কর্মকর্তা মো. আবছার উদ্দিন বলেন, অক্টোবর মাসে পেঁয়াজ আমদানি বেড়েছে, যার ফলে অন্যান্য পণ্য কম এসেছে। ফলে মাসিক রাজস্ব আদায় একটু কম হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে পিয়াঁজ আমদানি করছে ব্যবসায়ীরা। তবে এর পাশাপাশি অন্যান্য পণ্যে আমদানি বাড়াতে উৎসাহিত করা হচ্ছে।