‘জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে’ খোকা, সব চিকিৎসা বন্ধ

ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার চিকিৎসা বন্ধ করে দিয়েছেন তার চিকিৎসকরা। খোকার শারীরিক অবস্থা পরিবর্তনের আশা ছেড়ে দিয়েছেন তারা।

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন যাবত যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন সাদেক হোসেন খোকা এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। বর্তমানে তাকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হলেও তার চিকিৎসা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (১ নভেম্বর) বিএনপির মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সাদেক হোসেন খোকার শারীরিক অবস্থা কয়েকদিন ধরে স্থিতিশীল রয়েছে। বর্তমানে তাকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হলেও ক্যান্সারের চিকিৎসা বন্ধ করে দিয়েছেন ডাক্তাররা। আমরা খোকা সাহেবের চিকিৎসার ব্যাপারে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করছি।

গত ১৮ অক্টোবর সকালে খোকার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে নিউইয়র্কের মেমোরিয়াল স্লোয়েন ক্যাটারিং ক্যান্সার ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। এরপর গত ২৮ অক্টোবর তার স্বাস্থ্যের আরও অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়।

ক্যানসার চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের ১৪ মে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে যান সাদেক হোসেন খোকা। এরপর থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নিউইয়র্ক সিটির কুইন্সে অবস্থান করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রে থাকাকালে সাদেক হোসেন খোকার বিরুদ্ধে দেশে কয়েকটি দুর্নীতির মামলা হয়। রাজধানীর বনানী সুপার মার্কেটের কার পার্কিংয়ের ইজারা দুর্নীতির মামলায় খোকাসহ ৪ জনের ১০ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড হয়। গত বছরের ২৮ নভেম্বর ঢাকা বিভাগীয় স্পেশাল জজ মিজানুর রহমান খান এ রায় ঘোষণা করেন।