এই সেই জুয়াড়ি যার জন্য ক্রিকেটে বহিস্কৃত সাকিব

জুয়াড়ির সঙ্গে কথোপকথন গোপন করার মাশুল দিচ্ছেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশের এই তারকা অলরাউন্ডারকে দুবছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। কিন্তু কে সেই জুয়াড়ি, যার জন্য প্রতিভাবান এই ক্রিকেটারের ক্যারিয়ার আজ প্রশ্নের মুখে।

আইসিসি জানিয়েছে, অভিযুক্ত জুয়াড়ির নাম দীপক আগরওয়াল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মহলে পরিচিত দীপক আদতে হরিয়ানার সোনপতের বাসিন্দা ছিলেন। এখন থাকেন দুবাইয়ে। ভারতে একটি ক্রিকেট অ্যাকাডেমিও চালান তিনি।

আইসিসি জানিয়েছে, অভিযুক্ত জুয়াড়ির নাম দীপক আগরওয়াল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মহলে পরিচিত দীপক আদতে হরিয়ানার সোনপতের বাসিন্দা ছিলেন। এখন থাকেন দুবাইয়ে। ভারতে একটি ক্রিকেট অ্যাকাডেমিও চালান তিনি।

আবুধাবিতে একটি ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন সন্দেহজনক গতিবিধির জেরে তিনি আইসিসির নজরদারির আওতায় আসেন। তারপর তাকে লাগাতার নজরে রেখেছিল আইসিসির দুর্নীতিদমন শাখা। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার ঘনঘন কথোপকথন প্রকাশ্যে আনা হয়।

আবুধাবিতে একটি ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন সন্দেহজনক গতিবিধির জেরে তিনি আইসিসির নজরদারির আওতায় আসেন। তারপর তাকে লাগাতার নজরে রেখেছিল আইসিসির দুর্নীতিদমন শাখা। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার ঘনঘন কথোপকথন প্রকাশ্যে আনা হয়।

জানা গিয়েছে, হরিয়ানাতেই বেটিং চক্র শুরু করেছিলেন দীপক। সেখানে এই কাজে আর্থিক ক্ষতি হওয়ায় তিনি দুবাই চলে যান। তবে আইসিসির ধারণা, দীপক চক্রের মূল পাণ্ডা নন। বরং, তিনি কাজ করেন গ্যাবালিয়রের এক জুয়ারির জন্য। তাকেও নজরদারিতে রেখেছে আইসিসি।

জানা গিয়েছে, হরিয়ানাতেই বেটিং চক্র শুরু করেছিলেন দীপক। সেখানে এই কাজে আর্থিক ক্ষতি হওয়ায় তিনি দুবাই চলে যান। তবে আইসিসির ধারণা, দীপক চক্রের মূল পাণ্ডা নন। বরং, তিনি কাজ করেন গ্যাবালিয়রের এক জুয়ারির জন্য। তাকেও নজরদারিতে রেখেছে আইসিসি।

তদন্তে জানা গিয়েছে, দীপকের কাজ ছিল ক্রিকেটারদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের প্রলুব্ধ করা। যাতে তারা নির্দিষ্ট ম্যাচ নিয়ে তথ্য যোগান দেন। এখন ছোট ছোট ক্রিকেট লিগ ঘিরেও বাজি ধরা হয়। ফলে যে কোনো তথ্যই খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দেখা দেয়।

তদন্তে জানা গিয়েছে, দীপকের কাজ ছিল ক্রিকেটারদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের প্রলুব্ধ করা। যাতে তারা নির্দিষ্ট ম্যাচ নিয়ে তথ্য যোগান দেন। এখন ছোট ছোট ক্রিকেট লিগ ঘিরেও বাজি ধরা হয়। ফলে যে কোনো তথ্যই খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দেখা দেয়।

দীপক প্রথমে ক্রিকেটারদের টার্গেট করতেন। তারা যেখানে যেখানে খেলতে যেতেন, অনুসরণ করতেন দীপক। প্রাথমিক আলাপে কোনো নির্দিষ্ট ক্রিকেট লিগে খেলার জন্য বড় অঙ্কের টাকা অফার করতেন। ধীরে ধীরে ক্রিকেটারদের আস্থা অর্জন করে স্বরূপ ধারণ করতেন দীপক।

এই সেই জুয়াড়ি যার জন্য ক্রিকেটে বহিস্কৃত সাকিব

দীপক প্রথমে ক্রিকেটারদের টার্গেট করতেন। তারা যেখানে যেখানে খেলতে যেতেন, অনুসরণ করতেন দীপক। প্রাথমিক আলাপে কোনো নির্দিষ্ট ক্রিকেট লিগে খেলার জন্য বড় অঙ্কের টাকা অফার করতেন। ধীরে ধীরে ক্রিকেটারদের আস্থা অর্জন করে স্বরূপ ধারণ করতেন দীপক।

একবার ঘনিষ্ঠ হয়ে গেলেই ক্রিকেটারের কাছ থেকে ম্যাচ সংক্রান্ত তথ্য আদায় করার চেষ্টা করতেন দীপক। আইসিসির দাবি, সাকিবের সঙ্গে দীপকের প্রথম আলাপ ২০১৭ সালের মাঝ নভেম্বরে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সাকিব তখন খেলছেন ঢাকা ডায়নামাইটস-এর হয়ে। জেরায়, নির্বাসিত অলরাউন্ডার জানিয়েছেন, এক পরিচিতের মাধ্যমে তার নম্বর পেয়েছিলেন জুয়াড়ি দীপক আগরওয়াল।

একবার ঘনিষ্ঠ হয়ে গেলেই ক্রিকেটারের কাছ থেকে ম্যাচ সংক্রান্ত তথ্য আদায় করার চেষ্টা করতেন দীপক। আইসিসির দাবি, সাকিবের সঙ্গে দীপকের প্রথম আলাপ ২০১৭ সালের মাঝ নভেম্বরে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সাকিব তখন খেলছেন ঢাকা ডায়নামাইটস-এর হয়ে। জেরায়, নির্বাসিত অলরাউন্ডার জানিয়েছেন, এক পরিচিতের মাধ্যমে তার নম্বর পেয়েছিলেন জুয়াড়ি দীপক আগরওয়াল।

পরের বছর জানুয়ারিতে সাকিবের সঙ্গে আবার যোগাযোগ করেন দীপক। সে সময় ঢাকায় বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ চলছিল। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হওয়ার জন্য শাকিবকে শুভেচ্ছা জানান দীপক।

পরের বছর জানুয়ারিতে সাকিবের সঙ্গে আবার যোগাযোগ করেন দীপক। সে সময় ঢাকায় বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ চলছিল। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হওয়ার জন্য শাকিবকে শুভেচ্ছা জানান দীপক।

অভিযোগ, দ্বিতীয় আলাপেই শাকিবকে তথ্য সরবরাহের প্রস্তাব দেওয়া হয়। জানতে চাওয়া হয়, তিনি এখন কাজ করবেন, নাকি, আইপিএল অবধি অপেক্ষা করবেন? আইসিসির দাবি, ত্রিদেশীয় সিরিজে আগাগোড়া সাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল দীপকের।

অভিযোগ, দ্বিতীয় আলাপেই শাকিবকে তথ্য সরবরাহের প্রস্তাব দেওয়া হয়। জানতে চাওয়া হয়, তিনি এখন কাজ করবেন, নাকি, আইপিএল অবধি অপেক্ষা করবেন? আইসিসির দাবি, ত্রিদেশীয় সিরিজে আগাগোড়া সাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল দীপকের।

এরপর আবার যোগাযোগ আইপিএল-এর সময়ে। সে সময় শাকিব খেলছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলে। তার কাছে নির্দিষ্ট তথ্য চান দীপক। এবার শাকিব তাকে বলেন, তিনি প্রথমে দীপকের সঙ্গে দেখা করতে চান।

এরপর আবার যোগাযোগ আইপিএল-এর সময়ে। সে সময় শাকিব খেলছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলে। তার কাছে নির্দিষ্ট তথ্য চান দীপক। এবার শাকিব তাকে বলেন, তিনি প্রথমে দীপকের সঙ্গে দেখা করতে চান।