সন্ত্রাসবাদ রুখে দিতে গণশপথ বুয়েট শিক্ষার্থীদের

ক‌্যাম্পাসে সন্ত্রাসবাদ রুখে দিতে গণশপথ করলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখে দিতে গণশপথ কর্মসূচি পালন করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও শিক্ষকেরা। আর এই গণশপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার বিচারের দাবিতে মাঠ পর্যায়ের চলমান আন্দোলন সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) দুপুর সোয়া একটায় বুয়েট মিলনায়তনে গণশপথ পাঠ কর্মসূচির মাধ্যমে মাঠের আন্দোলন ইতি টানার ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা।

শপথ অনুষ্ঠানে প্রায় এক হাজার ৮০০ শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে উপাচার্য মোঃ সাইফুল ইসলামসহ অন্যান্য শিক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন। শপথ বাক্য পাঠ করান শিক্ষার্থী রাফিয়া এবং তার সঙ্গে অন্য শিক্ষার্থীরা বুকে হাত রেখে দাঁড়িয়ে শপথ বাক্য পাঠ করেন।

শপথ পাঠ করা আগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার আবরারের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের ছাত্র সৌমিক জানান, গণশপথের মাধ্যমে আমরা রাজপথে অবস্থান করার মতো কর্মসূচিগুলো থেকে বিরত থাকব। আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এজাহারে যাদের নাম এসেছে তাদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত কোনো ধরনের একাডেমিক কার্যক্রমে চলবে না। প্রথম থেকে যে দাবি নিয়ে আমরা আন্দোলনে নেমেছিলাম পরবর্তীতে সংশোধিত সেই ১০ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেক্ট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ ওঠে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে। এরপর থেকে ১০ দফা দাবিতে রাজপথে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা।১০দিন পর সেই আন্দোলনের ইতি টানলেন শিক্ষার্থীরা।