বিমান ছাড়তে দেরি করায় পাইলটকে মারধর, তিনযাত্রী অফলোড!

বিমান ছাড়তে দেরি হওয়ায় কেবিন ক্রুদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েছিলেন একই পরিবারের তিন যাত্রী। তাদের ক্ষান্ত করতে এগিয়ে এসে পাইলটও হেনস্থা হয়। পাইলটকে মারধর করার অভিযোগে তিনজন যাত্রীকে নামিয়েই (অফলোড) গন্তব্যের দিকে রওনা দেয় উড়োজাহাটি।

এ ঘটনাটি ঘটে শনিবার দুপুরে মুম্বইয়ের ছত্রপতি শিবাজী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভারতের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়ার একটি ফ্লাইটে । এআই–৬৬৩ বিমানটি মুম্বই থেকে গোয়া যাওয়ার কথা ছিল। বিমান ছাড়ার সময় ছিল দুপুর ১.‌১৫। বোডিংও সময় মতো হয়েছিল। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য উড়োজাহাজে ছাড়তে দেরি হচ্ছিল।

এদিকে বিরক্ত হয়ে পড়েছিলেন বোডিং হওয়া একই পরিবারের সদস্য তিন যাত্রী। দেরির প্রতিবাদের তারা এক নারী কেবিন ক্রুর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। কেবিন ক্রু তাদের যান্ত্রিক ত্রুটির কথা জানিয়ে ক্ষমা চান। কিন্তুু ক্ষুদ্ধ তিন যাত্রী কোনভাবেই মানতে নারাজ। তারা হইচই শুরু করে। অবস্থা বেগতিক দেখে কেবিন ক্রুরা পুরো বিষয় পাইলটকে জানায়। যাত্রীদের ক্ষান্ত করতে ককপিট থেকে উঠে আসেন পাইলট। কিন্তু তিনিও হেনস্থার শিকার হন । উত্তেজিত তিন যাত্রী চড়াও হয় তার উপর। পাইলটকে মারধর করেন তারা, ওঠে এমন অভিযোগও ।

উপায়ন্ত হয়ে পাইলট এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল ঘটনা জানান। এরপর দরজা খুলে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয় তিন যাত্রীকে। এয়ার ইন্ডিয়ার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ক্রুদের সাথে দুর্ব্যবহারের কারণে তিন যাত্রীকে অফলোড করা হয়েছে।

যান্ত্রিক ত্রুটির সাথে এই ঘটনার জেরে মুম্বই থেকে গোয়া যাওয়ার ফ্লাইট টি পাঁচ ঘন্টা দেরি করেছিল। সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ গন্তব্যের দিকে উড়ে যায় বিমানটি।